সমস্বরের ব্যতিক্রমী আয়োজন

সুনীল বড়ুয়া

বৃহস্পতিবার , ১৩ জুন, ২০১৯ at ৬:০০ পূর্বাহ্ণ
16

‘তোঁয়ারা জাননি ওভাই, রামুরে রম্যভূমি হয় কিয়রল্লাই, রামু বড় সুন্দর জাগা, এড়ে হন ধর্ম-বর্ণ জাত ভেদাভেদ নাই, রামুরে রম্যভূমি হয় এতল্লাই’ এটি কক্সবাজার প্রখ্যাত কবি আশীষ কুমারের লেখা এই গান। কবির এ রকম অসংখ্য গান কবিতা আছে যেগুলো রামুর কথা বলে, রামুর মানুষের কথা বলে । বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা বলে,স্বাধীনতার কথা বলে।
সেই প্রয়াত কবি আশীষ কুমারের স্মরণে এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে লেখা তাঁর কাব্যগ্রন্থ ‘সূর্য সত্য শেখ মুজিব’ অবলম্বনে আবৃত্তি ও সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন করে রামুর নাট্য সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘সমস্বর’। সম্প্রতি রামু খিজারী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টাব্যাপী এ আয়োজনে ছিল কবিতা, গান আর কথামালার আয়োজন।
অনুষ্ঠানে কবি আশীষ কুমারের কাব্যগ্রন্থের ‘নির্ঘন্ট: ঘৃণার সভা’ এ দীর্ঘ কবিতাটি আবৃত্তি করেন আবৃত্তিকার, জসিম উদ্দিন বকুল। এছাড়াও মাস্টার মো. আলম ‘সূর্য্য সত্য শেখ মুজিব’, অধ্যাপক নীলোৎপল বড়ুয়া, ‘শেখের পুতের জবান’, কবি কণ্যা বিভা বড়ুয়া ‘বাগান’, এবং চিকু বড়ুয়া ‘অদ্বৈত’ কবিতাটি আবৃত্তি করেন। ‘তোঁয়ারা জাননি ওভাই, রামুরে রম্যভূমি হয় কিয়রল্লাই, রামু বড় সুন্দর জাগা, এড়ে হন ধর্ম-বর্ণ জাত ভেদাভেদ নাই, রামুরে রম্যভূমি হয় এতল্লাই’ কবি আশীষ কুমারের লেখা এই গানটি পরিবেশন করেন শিল্পী আবুল কাশেম। এটি দিয়েই শুরু হয় অনুষ্ঠানের সুরের আয়োজন। এছাড়াও কবির লেখা গান পরিবেশন করেন সংগীত শিল্পী আশীষ কুমারের ভাই প্রবীর বড়ুয়া, লোকশিল্পী গোলাম কবির,পলি বড়ুয়া ও রিসপা।
কবি পত্নী ডলি বড়ুয়া ও কবি কণ্যা বিভা বড়ুয়াকে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানানোর মধ্যদিয়ে শুরু হয় কবি আশীষ কুমার স্মরণে স্মৃতিচারণ সভা।
এতে স্মৃতিচারণ করেন এড. নুরুল ইসলাম, সাংবাদিক বিশ্বজিৎ সেন বাঞ্চু, কবি সুলতান আহমদ মনিরী, শিল্পী বশিরুল ইসলাম, শিক্ষক নাসির উদ্দিন, কবি পত্নী ডলি বড়ুয়া ও কবি কন্যা বিভা বড়ুয়া। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন অধ্যাপক নীলোৎপল বড়ুয়া ও স্কুলের অধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম। যন্ত্রানুঙ্গে ছিলেন এইচ বি পান্থ, আবুল কাশেম, মিজানুল হক, সুজয়, কামাল ও ওমর ফারুক মাসুম।

x