সবুজছায়ার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

আনন্দন প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার , ২৩ মে, ২০১৯ at ৪:০৯ পূর্বাহ্ণ
16

সম্প্রতি সবুজছায়া সঙ্গীতাঙ্গনে সঙ্গীত প্রতিযোগিতা ও সনদসহ পুরস্কার বিরতণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ভোলানাথ চন্দের সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ড. বিপ্লব গাঙ্গুলী, প্রধান আলোচক ছিলেন শিল্পী রাজীব দাশ। বিশেষ অতিথি ছিলেন এম. এ. নুরুন্নবী চৌধুরী। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে শিশুদের মাঝে সঙ্গীত শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। সঙ্গীতের মাধ্যমে যেমন ফুটে উঠে তার অব্যক্ত কথাগুলো। তেমনি সঙ্গীত চর্চা মানুষের মেধা, মনন ও স্মৃতিশক্তি বিকাশের ক্ষেত্রে অন্যতম ওষুধ হিসেবে কাজ করে থাকে। শান্তির দেশ গড়তে হলে সঙ্গীত শিক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দেওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। প্রধান বক্তা রাজীব দাশ বলেন, শিল্পী কখনো অপরাধ জগতে জড়াতে পারে না। তাই বর্তমানে সরকার সঙ্গীত শিক্ষার প্রসারতার জন্য কাজ করে চলেছেন। বিশেষ অতিথি এম. এ. নুরুন্নবী চৌধুরী বলেন, সরকারের পাশাপাশি সকলের সহযোগিতা থাকলে সঙ্গীত কার্যক্রম আরো উন্নতির দিকে এগিয়ে যাবে। এতে আরো বক্তব্য রাখেন শিল্পী তন্ময় দাশ, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সঙ্গীতাঙ্গনের অধ্যক্ষ সমীর চক্রবর্তী।
অনুষ্ঠানের শুরুতে দলীয়ভাবে সঙ্গীত পরিবেশন করেন ছাত্রী আবৃতা বণিক ‘ও আমার দেশের মাটি তোমার পরে ঠেকায় মাথা’। ‘সোনা সোনা সোনা লোকে বলে সোনা সোনা নয় তত খাঁটি’ দেশের গানটি দলীয়ভাবে পরিবেশন করেন সুমাইয়া চৌধুরী হৃদি।
এরপর অন্যান্যদের মধ্যে গান পরিবেশন করেন বৃষ্টি, বাঁধন পাল, অঙ্কিতা, সুস্ময়, পূর্ণতা তালুকদার, ইলমি, আরিশা আজোয়া বাহার, সুনেহারা মেহেজাবিন বাহার, ওয়াসিফ নুজহাত, আফসিন বাহার সামারা, ঋতু চন্দ প্রমুখ। তন্নি চন্দের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠান শেষে সবুজছায়া সঙ্গীতাঙ্গনের বার্ষিক সমাপনী পরীক্ষার সনদ বিতরণ এবং সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সনদসহ পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

x