সদরঘাটে ৭ টন জাটকা জব্দ

জেলা প্রশাসনের অভিযান

আজাদী প্রতিবেদন

শুক্রবার , ২৪ মে, ২০১৯ at ৫:৫৩ পূর্বাহ্ণ
6

নগরের আগ্রাবাদ ও সদরঘাটের দুটি রেস্টুরেস্ট ও একটি হিমাগারে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৭ টন জাটকা জব্দ ও ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এ অভিযান চালানো হয়।
জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে আগ্রাবাদ এলাকার ওরিয়েন্ট রেস্টুরেন্টে অভিযান চালান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহফুজা জেরিন। এ সময় তিনি দেখতে পান, মেয়াদোত্তীর্ণ পায়েস ফ্রিজে সংরক্ষণ করা হয়েছে। তাছাড়া অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার সংরক্ষণ করা হয়েছে রেস্টুরেন্টটিতে। জেলা প্রশাসন থেকে প্রয়োজনীয় বৈধ লাইসেন্সও নেওয়া হয়নি। এসব অপরাধে রেস্টুরেন্টটিকে দুই ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি সন্নিকটের ঘরানা রেস্টুরেন্টে অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখতে পান, রেস্টুরেন্টটিতে হাইকোর্ট নিষিদ্ধ বাঘাবাড়ি ঘি রান্নার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এ সময় ঘরানা রেস্টুরেন্টকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করে আদালত। অন্যদিকে অবৈধভাবে বিপুল পরিমাণে জাটকা সংরক্ষণ করার খবর পেয়ে সদরঘাটের কর্ণফুলী হিমাগারের ৩৫ নম্বর স্টোরে অভিযান চালান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান। এ সময় চাপিলা মাছের সাথে মিশ্রিত অবস্থায় প্রচুর পরিমাণে জাটকা দেখতে পাওয়া যায়। অভিযানে ৭ টন জাটকা মাছ জব্দ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে জাটকা রাখার অপরাধে মো. জয়নালকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে জেলা মৎস্য কর্মকর্তারা সহযোগিতা করেন। তবে সময় স্বল্পতার কারণে জব্দকৃত জাটকা হিমাগার কর্তৃপক্ষের জিম্মায় রেখে আসা হয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান বলেন, আমরা কর্ণফুলী হিমাগারে অভিযান চালিয়ে ৭ হাজার কেজি জাটকা জব্ধ এবং ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছি। এ সময় জব্দকৃত জাটকা মাছগুলো হিমাগার কর্তৃপক্ষের জিম্মায় রেখে আসা হয়। পরে সুবিধাজনক সময়ে নগরের এতিম খানা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে এসব জাটকা বিলি করা হবে বলে তিনি জানান।

x