শৃঙ্খলা ফেরাতে সড়কে ফের নেমেছে বিআরটিএ

দুই দিনে প্রায় দুই লাখ টাকা জরিমানা, ৯২ মামলা

আজাদী প্রতিবেদন

মঙ্গলবার , ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৫:৫৫ পূর্বাহ্ণ
140

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মাসখানিক কার্যত্রম বন্ধ থাকার পর নতুন করে আবারও রাস্তায় নেমেছে বিএরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত দুই দিনে দপ্তরটির পরিচালিত পৃথক তিন ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন যানবাহনের বিরুদ্ধে ৯২টি মামলা, এক লাখ ৯২ হাজার ১’শ টাকা জরিমানা করার পাশাপাশি কয়েকটি যানবাহনের কাগজপত্র জব্দ করে। এর আগে গত রোববার থেকে নগরীতে পুনরায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যত্রম শুরু হয় বলে জানায় বিএরটিএ কর্তৃপক্ষ। প্রথম দিন নগরীর মুরাদপুরে বিআরটিএ চট্টগ্রাম বিভাগের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউল হক মীরের আদালত-১১ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন যানবাহনের বিরুদ্ধে ১৬টি মামলা প্রদানের পাশাপাশি ৫১ হাজার ২’শ টাকা জরিমানা করে। এ সময় ৪টি যানবাহনের কাগজপত্র জব্দ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই দিন আদালত-১৩ এর নিব্র্‌াহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারীতে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন যানবাহনের বিরুদ্ধে ২৫টি মামলা প্রদানের পাশাপাশি ৩০ হাজার ৪’শ টাকা জরিমানা করে। পরদিন গতকাল সোমবার পৃথক তিনটি ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন যানবাহনকে এক লাখ ১০ হাজার ৫’শ টাকা জরিমানা করার পাশাপাশি ৫১টি মামলা প্রদান করেন। এ সময় ৯টি যানবাহনের কাগজপত্র জব্দ করা হয়। নগরীর বাদামতলী মোড়, ষোলশহর ও হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতালের সামনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে এসব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
বিএরটিএ চট্টগ্রাম অঞ্চলের দাপ্তরিক সূত্রে জানা গেছে, বিএরটিএ চট্টগ্রাম বিভাগের আদালত-১১’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতালের সামনে অভিযানে বিভিন্ন যানবাহনকে ১৫টি মামলা দায়েরের পাশাপাশি ৫৬ হাজার ৮’শ টাকা জরিমানা করে। এ সময় তিনি ৫টি যানবাহনের কাগজপত্রও জব্দ করা হয়। একই সময় নগরীর আগ্রাবাদে বাদামতলী মোড়ে বিএরটিএ নির্বাহী ম্যাজিেস্ট্রেট এসএম মনজুরুল হকের আদালত-১২ অভিযান চালিয়েছে। এ সময় বিভিন্ন যানবাহনের বিরুদ্ধে ১২ টি মামলা প্রদানের পাশাপাশি ৩০ হাজার ৯’শ টাকা জরিমানা করা হয়। অপর এক অভিযানে বিএরটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানার আদালত-১৩, ষোলশহরে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন যানবাহনের বিরুদ্ধে ২৪ টি মামলা দেওয়ার পাশাপাশি ২২ হাজার ৮’শ টাকা জরিমানা করে। এ সময় আরও ৪টি যানবাহনের কাগজপত্র জব্দ করেন তিনি।
এর আগে চলতি বছর নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পর সরকার বেশকিছু নীতিগত সিদ্ধান্তে আসে। এর ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রাম বিআরটিএ কার্যালয়ে প্রথমবারের মতো ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ পায়। গত আগস্টে প্রথম দফায় দু’জন ম্যাজিস্ট্রেট, পরবর্তীতে আরও একজন ম্যাজিস্ট্রেট কার্যালয়টিতে নিয়োগ পান। ওই মাসের ৩০ তারিখ থেকে মূলত বিআরটিএ সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আসছে। তখন থেকেই নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে বিআরটিএ’র পৃথক তিন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মাসখানিকেরও বেশি কার্যক্রম বন্ধ রাখে বিএরটিএ কর্তৃপক্ষ।

x