শিরোপা জিততে আত্মবিশ্বাসী রূপগঞ্জ কোচ আফতাব

ক্রীড়া প্রতিবেদক

রবিবার , ১৪ এপ্রিল, ২০১৯ at ৮:০২ পূর্বাহ্ণ
40

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের প্রথম পর্ব শেষে ২০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে লিজেন্ড অব রূপগঞ্জ। ১১ ম্যাচের ১০টিতেই জয় পাওয়া রূপগঞ্জের কোচের দায়িত্বে আছেন চট্টগ্রামের ছেলে সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার আফতাব আহমেদ। জাতীয় দলের সাবেক ব্যাটসম্যান শিরোপা জিততে আত্মবিশ্বাসী। আগামী সোমবার শুরু হবে ছয় দলের সুপার লিগ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের চেয়ে ৪ পয়েন্টে এগিয়ে রূপগঞ্জ বেশ নির্ভার। কোচ আফতাব প্রথম পর্বের পারফরম্যান্স চান শিষ্যদের কাছ থেকে, ‘লিগের শুরু থেকেই আমি খেলোয়াড়দের বলেছি, আমরা শিরোপার জন্য খেলবো না। আমাদের খেলতে হবে ম্যাচ বাই ম্যাচ চিন্তা করে। কার বিপক্ষে ম্যাচ, সেটা নিয়েও আমরা ভাববো না। আমার বিশ্বাস, প্রথম পর্বের পারফরম্যান্স সুপার লিগে ধরে রাখতে পারবে ছেলেরা। আপাতত আমাদের লক্ষ্য, জয় দিয়ে সুপার লিগ শুরু করা।’ সুপার লিগের প্রথম প্রতিপক্ষ মোহামেডানের চেয়ে ৮ পয়েন্টে এগিয়ে আছে রূপগঞ্জ।
বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনী লিমিটেড এবং শক্তিশালী প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের সংগ্রহ যেখানে ১১ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট, সেখানে রূপগঞ্জের ঝুলিতে রয়েছে সমান ম্যাচে ২০ পয়েন্ট। আজ রোববার বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে সবকিছু বন্ধ থাকবে বিধায় গতকালই নিজেদের শেষ অনুশীলন সেরে নিয়েছে দলটি। অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন রূপগঞ্জের প্রধান কোচ আফতাব আহমেদ। যিনি প্রথমবারের মতো প্রিমিয়ার ক্রিকেটে প্রধান কোচের দায়িত্ব নিয়েই করেছেন বাজিমাত। অন্য সব দলকে পেছনে ফেলে নিজ দলকে রেখেছেন পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। মাঠে খেলাটা ক্রিকেটাররা খেললেও, মাঠের বাইরে পরিকল্পনা সাজানোর কাজটা করতে হয় কোচকেই। সে কাজে এখনো পর্যন্ত শতভাগ সফল জাতীয় দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার আফতাব।
তবে পয়েন্ট টেবিলে অনেক এগিয়ে থাকলেও এখনই স্বস্তির নিশ্বাস ফেলতে রাজি নন আফতাব। তার মতে শিরোপা জিততে হলে সুপার লিগেও থাকতে হবে সতর্ক। প্রতি ম্যাচ থেকে নিতে হবে মূল্যবান ২টি পয়েন্ট। সে লক্ষ্যেই সুপার লিগের প্রথম ম্যাচে তার প্রধান লক্ষ্য ২ পয়েন্ট।
‘আমরা যখন সুপার লীগের পরের ম্যাচগুলো শুরু করতে যাবো তখন যেহেতু সেটি কঠিন পজিশন, কঠিন সময়- সবাই খুব ভালো খেলেই সুপার লীগে উঠেছে। সুতরাং এদের সাথে কোনও প্রকার স্বস্তির সুযোগই নেই। আমাদের প্রথম ম্যাচ মোহামেডানের সাথে। লক্ষ্য থাকবে ঐ ম্যাচটি জিতে পরবর্তী ম্যাচের কথা চিন্তা করা।’
রূপগঞ্জের হয়ে প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে খেলেছেন ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদ। তবে পুরো ১০ ওভার বোলিং করেননি তিনি। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচটিতে ৫ ওভারে ৩৬ রান খরচ করেন তিনি। ইনজুরি থেকে ফিরে স্বাভাবিক বোলিং করতে পারায়ই তাসকিনের প্রতি খুশি আফতাব। সুপার লিগে আরও ভালো করবেন তাসকিন, এমনটাই চাওয়া আফতাবের।
তাসকিনের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, তাসকিন এখন শতভাগ ফিট বলেই কিন্তু ওকে খেলানো হচ্ছে। আমাদের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার একটি সুযোগ আছে, ভালো একটি পজিশনে আছে দল। এখন ও (তাসকিন) যদি ৭০ ভাগ ফিট থাকতো তাহলে কিন্তু আমরা এই সুযোগটি নিতাম না। যেহেতু আমাদের একটি সুযোগ আছে, সুতরাং আমাদের এখানে ঝুঁকি নেয়ার সুযোগ থাকছে না।’ ‘অবশ্যই ওর এফোর্ট অনেক ভালো, আজকেও দেখছেন আপনারা। শতভাগ এফোর্ট দিয়ে বোলিং করছে। প্রথম স্পেলে ৫ ওভার বোলিং করেছে, এখন আবার বোলিং করছে। সবমিলিয়ে যদি সবকিছু ঠিক থাকে আর দলের একটি কম্বিনেশনের ব্যাপার আছে। সবকিছু মিলিয়ে যদি ঠিক থাকে সবকিছু তাহলে আলহামদুলিল্লাহ সমস্যা হবে না’- আরও বলেন আফতাব। ঐতিহ্যবাহী মোহামেডানকে হালকাভাবে নিতে নারাজ আফতাব, ‘মোহামেডানকে কোনও ভাবেই সহজ প্রতিপক্ষ ভাবার সুযোগ নেই। মাঠে সেরা ক্রিকেট খেলেই জিততে হবে আমাদের। সুপার লিগে প্রথম তিন ম্যাচে জয় পেলেও পরের দুই ম্যাচ আমরা সহজভাবে নেবো না।’

x