শরীর ফিট ও সুন্দরে আ্যরোবিক্স

মো. মুজিবুল হক শ্যামল

শনিবার , ৭ জুলাই, ২০১৮ at ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ
62

মানুষের আপাত দৃশ্যমান সৌন্দর্য হচ্ছে তার রূপ। রূপের জন্য আকর্ষণীয়তা। আর এ আকর্ষণীয়তা কিভাবে করা যায়? রূপের সৌন্দর্যের জন্যই নারীর আকর্ষণীয়তা। রুপকে আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য প্রথমেই প্রয়োজন বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গকে সুসামঞ্জস্য ও সুগঠিত করে গড়ে তোলা। রূপচর্চার অন্যতম প্রধান শর্তই ব্যায়ামচর্চা। আর ব্যায়ামচর্চার আরেক ধাপ হচ্ছে মহিলাদের অ্যারোবিক্স ব্যায়াম। হোক না আপনি নারী। একজন নারীর সবচেয়ে বড় সাফল্য অন্যের চোখে নিজেকে আকর্ষণীয় করে তোলা। জন্মগতভাবে সুন্দর চেহারার অধিকারী হওয়া সত্ত্বেও অনেকে নিজেকে ফুটিয়ে তুলতে পারে না। সুন্দর না হয়েও ব্যায়াম বা অ্যারোবিঙের মাধ্যমে রূপকে বৃদ্ধি করা যায় আকর্ষণীয় করে তোলা যায় শরীরের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গকে। এর মাধ্যমে পারবেন আপনার যেকোন বাড়তি শরীর কমাতে। অ্যারোবিঙ ব্যায়ামের মাধ্যমেই আপনি পারেন শরীরের কোনো অংশকে বাড়িয়ে কিংবা কোনো অংশকে কমিয়ে মোহনীয় ফিগারের অধিকারীনী হতে। আসলে ব্যায়ামের মধ্যে হরেক ধরনের আছে তা অনেকে জানে না। অ্যারোবিঙ হল একের ভেতর দুই এতে ব্যায়ামও হল নাচও শেখা হল। মনে রাখবেন নাচের মতো করে করতে হবে এমন কোন ধরাবাধা নিয়ম নেই। আপনি চাইলে যেমন ইচ্ছে নাচতে পারেন। এর জন্য নিয়ম না মানলে সমস্যা নেই। এটি করার সময় আপনার শরীর থেকে ঘাম ঝড়লে বুঝতে হবে আপনার ব্যায়ামটি হচ্ছে। নিয়ম কানুন করে করতে চাইলে অবশ্যই প্রশিক্ষিত ট্রেনার বা জিমে গিয়ে করতে হবে, এটি সবার পক্ষে সম্ভব হয় না।

আসলে অ্যারোবিক্স ব্যায়াম হলো ক্যাসেট প্লেয়ারে মিউজিকের তালে তালে অঙ্গপ্রত্যঙ্গ নাড়ানোকে বুঝায়। অর্থাৎ মিউজিকের তালে তালে আপনাকে নাচতে হবে। মেয়েদের শারীরিক গঠন সুন্দর ও আকর্ষনীয় করতে নৃত্য একটি অত্যন্ত কার্যকরী ব্যায়াম। শরীর নমনীয় করতে ও স্থিতিস্থাপক রাখতে এ ব্যায়ামের জুড়ি নেই। আপনার নিকট মিউজিক ভালো না লাগলে আপনি আপনার পছন্দনীয় যে কোনো গান বাছাই করে গানের তালে তালেও নৃত্য করতে পারেন। উন্নত বিশ্বে অ্যারোবিঙের আলাদা আলাদা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বা ব্যায়ামের ব্যবস্থা আছে। আমাদের দেশে এখনও এটি এত পরিচিত হয়ে উঠতে পারেনি। এটি আপনি বাসায় করতে চাইলে অনায়াসে করতে পারেন। অ্যারোবিঙের ব্যায়াম কঠিন কিছু নয়। কয়েকদিন অনুশীলন করে দেখুন খুব ভালো উপকার পাবেন ও করতে আগ্রহ জাগবে। আপনি যদি নিজের সৌন্দর্য সম্পর্কে সচেতন হন তাহলে ব্যায়াম অনুশীলন আপনার জন্য অপরিহার্য। ব্যায়াম ছাড়া এমন কোন ওষধ বা প্রসাধন নেই যার মাধ্যমে আপনি আপনার দেহ সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে নিজেকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে পারে আপনার প্রতিটি অঙ্গকে, ফুটিয়ে তুলতে পারে আপনার সার্বিক রূপ ও সৌন্দর্যকে।

মহিলারা ভুঁড়ি কেন কমাবেন

ভুঁড়ি কিন্তু শুধু পেটের একটা আকৃতি বা মোটা হয়ে যাওয়া নয়, এর তাৎপর্য বেশ গভীর। ভুঁড়ি হলে শুধু দেখতে খারাপ লাগে না সরাসরি শরীরের উপরও একটা প্রভাব পড়ে। ওয়েটহিপ রেশিওর ওপর ভিত্তি করে ভুঁড়ি মাপা হয়। যদি এই রেশিও ০.৭ হয়, তাহলে ভয়ের কিছু নেই। কিন্তু ০.৮ বা তার থেকে বেশি হলেই বুঝতে হবে বিপদসীমায় ঢুকে পড়েছেন। তখন থেকেই নিয়ন্ত্রণ না করলে সমূহ বিপদ। ওয়েস্টলাইন ইচ্ছেমতো বাড়তে থাকলে, হার্ট ডিজিজ, ডায়াবিটিস, স্টোকের মতো অসুখও আপনার জীবনে নিঃশব্দে ঢুকে পড়বে। মহিলাদের ক্ষেত্রে ওয়েস্টলাইন বাড়া মানে ফ্যাট সেলের সংখ্যা বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে বিপদ হওয়ার সম্ভাবনা তুলনায় বেশি। তাই বিশেষজ্ঞরা মনে করেন ‘পিয়ার শেপড বডি ইজ বেটার দ্যান আপেল শেপড বডি’ কারণ অ্যাপেল শেপড বডিতে অ্যাবডোমিনাল ওবিসিটি মারাত্নক আকার ধারণ করতে পারে। এর থেকে বোঝা যায় শরীরে বেশ ভাল পরিমাণ ভিসারেল ফ্যাট জমেছে। এই ভিসারেল ফ্যাট সাবকিউটোনিয়াস ফ্যাটের থেকে আলাদা। সাবকিউটেনিয়াস ফ্যাট ত্বকের নীচের পরতে জমা হয় তাই দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু ভিসারেল ফ্যাট শরীরের সমস্ত জরুরি অর্গান যেমন র্হাট, লিভার, ডাইজেস্টিভ ট্রাক্টের ভেতরে জমা হয়। ক্রমশ এইভাবে ফ্যাটের পরত জমতে থাকলে তা শরীরের পক্ষে কতটা ক্ষতিকারক তা নিশ্চয় বুঝতে পারছেন। অল্পবিস্তার ভিসারেল ফ্যাট থাকা ভাল, কারণ তা কুশনের মতো কাজ করে, কিন্তু বেড়ে গেলেই চিত্তির। হাইপারটেনশন, হার্ট ডিজিজ, ডায়াবেটিসের মতো হাজারটা ব্যাধি জীবনকে ব্যতিব্যস্ত করে তুলবে। তাই সব মহিলাদের বলছি, মাথায় ঢুকিয়ে ফেলুন, ওয়েস্টলাইন ৩৫ ইঞ্চির উপর উঠতে দেবেন না।

মহিলাদের ক্ষেত্রে সঠিক মাপের কোমর ও নিতম্ব মেয়েদের রুপকে বাড়িয়ে দেয় অনেকখানি। মেয়েদের ক্ষেত্রে বক্ষ যত ইঞ্চি থাকবে তার থেকে কোমর থাকবে ১০১২ ইঞ্চি কম এবং ৩৪ ইঞ্চি বড় হবে নিতম্ব। কোমর, বক্ষ ও নিতম্ব একই মাপের হলে মেয়েদের তেমন দেখতে ভাল লাগে না। সঠিক মাপের কোমর ও নিতম্ব মেয়েদের রুপকে বাড়িয়ে দেয় অনেকখানি।

x