রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহযোগিতা করবে চীন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার , ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৫:৪৮ পূর্বাহ্ণ
26

চীন রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল কে আব্দুল মোমেন। গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, মিয়ানমার যাদের উপর নির্ভরশীল, তারা বাংলাদেশকে সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীন সফরকালে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির সাথে কথা বলেছেন। তারা সবাই এক বাক্যে স্বীকার করেছেন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তন অবশ্যই অবশ্যই প্রয়োজন। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চীন অবশ্যই বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে। খবর বিডিনিউজের।
সংকটের সুরাহার লক্ষ্যে এ মাসের শেষে নিউ ইয়র্কে শুরু হতে যাওয়া জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের সময় চীনের মধ্যস্থতায় মিয়ানমার ও বাংলাদেশের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন যদি বিলম্বিত হয় এবং অনিশ্চয়তা দেখা দেয়, তাহলে শুধু বাংলাদেশ বা মিয়ানমারের ক্ষতি হবে তা নয়, যারা এই অঞ্চলে বিনিয়োগ করেছেন তারাও যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা তাদের সরকারকে বিশ্বাস করে না। আমরা মিয়ানমারকে কিছু শর্ত দিয়ে বলেছি আপনারা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে নিয়ে গিয়ে দেখান, তাদের নাগরিকত্ব প্রদান করেন এবং তাদের স্বাধীনভাবে থাকা এবং চলাফেরা করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে তাদের নিজেদের ভূমিতে ফেরত পাঠাতে যা যা দরকার, বাংলাদেশ সরকার তার সবই করছে মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, আমরা অবশ্যই সফল হব।
টেলিভিশন অনুষ্ঠান প্রযোজনা সংস্থা হোম মিডিয়া ও ল্যান্ড মার্ক পাবলিকেশন অ্যান্ড প্রোডাকশন হাউস লিমিটেড (এলটিভি বাংলা) ‘রোহিঙ্গা নাগরিকদের স্বদেশে প্রত্যাবর্তন বিষয়ক জাতীয় সংলাপ’ শীরোনামে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অন্যদের মধ্যে সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকসুদুর রহমান পাটোয়ারি আলোচনায় অংশ নেন।

x