রাখাইনে ভাই হত্যার বদলা উখিয়ায়

উখিয়া প্রতিনিধি

শনিবার , ১৭ মার্চ, ২০১৮ at ৪:০০ পূর্বাহ্ণ
291

উখিয়ার কুতুপালং মেঘা আশ্রয় শিবিরে এক রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী হামলায় খুন হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কুতুপালং আশ্রয় শিবিরে ডি৪ ব্লকে এ খুনের ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে দাফনের জন্য স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে। খুনি অন্য রোহিঙ্গারা পলাতক রয়েছে। উখিয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। ক্যাম্পে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের সাথে আলাপে জানা গেছে, রাখাইনে ভাই হত্যার বদলা নিতে হাকিম নামে এ রোহিঙ্গাকে রফিক নামে আরেক রোহিঙ্গা খুন করে। কুতুপালং মেঘা ক্যাম্প ব্যবস্থাপনা কমিটির সেক্রেটারি মোঃ নুর জানান, কয়েক বছর আগে রাখাইনে একটি হত্যার ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট মোঃ হাকিম (৩২) সে সময় পালিয়ে বাংলাদেশে চলে আসে। রাখাইনে স্ত্রী ও দুই ছোট শিশু রেখে পালিয়ে এসে মোঃ হাকিম আলী কদমে আশ্রয় নেয়। সেখানে একটি বিয়ে করে। গত আগস্টে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের সময় মোঃ হাকিমের স্ত্রী ও দুই ছেলে মেয়ে কুতুপালং ডি৪ ব্লকে আশ্রয় নেয়। খবর পেয়ে কয়েকদিন আগে মোঃ হাকিম প্রথম স্ত্রীর কাছে সন্তানদের দেখতে ক্যাম্পে আসে। মিয়ানমারে হত্যার ঘটনায় প্রতিপ রাও একই ক্যাম্পে আশ্রয় নেয়। মোঃ হাকিমের ক্যাম্পের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে পূর্বের হত্যার শিকার ব্যক্তির ভাই মোঃ রফিক (৩০) প্রতিশোধে জ্বলে উঠে। বৃহস্পতিবার রাতে মোঃ হাকিমকে প্রথম স্ত্রীর ঘর থেকে ডেকে নিয়ে ৩/৪জন মিলে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ঘটনাস্থলে খুন করে পালিয়ে যায়। উভয়ে রাখাইনের মংডুর লো ধাইন গ্রামের বাসিন্দা ও প্রতিবেশী।

x