রশীদ আল ফারুকীর লেখনীতে সমাজ পরিবর্তনের কথা উঠে এসেছে

সাহিত্য পরিষৎ-এর অনুষ্ঠানে বক্তারা

শনিবার , ১৬ মার্চ, ২০১৯ at ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ
15

বাংলাদেশ সাহিত্য পরিষৎ-এর উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার চবি বাংলা বিভাগের প্রাক্তন সভাপতি ড. রশীদ আল ফারুকীকে নিয়ে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সাহিত্য পরিষৎ এর সভাপতি কবি জিন্নাহ চৌধুরী, প্রভাষক হাসান মেহেদীর সঞ্চালনায় অতিথি ছিলেন চবি উপ-উপাচার্য ড. শিরীণ আখতার ও সরকারি কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ আইয়ুব ভুঁইয়া। স্বাগত বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ সাহিত্য পরিষৎ-এর সাধারণ সম্পাদক আহমেদ খসরু। সভায় বক্তব্য দেন, আ ফ ম মোদাচ্ছের আলী, ড. মোহাম্মদ আনোয়ার সাঈদ, ড. শফিউল আযম ডালিম, সিপিবির সাধারণ সম্পাদক অশোক সাহা, টিইউসির সভাপতি তপন দত্ত। বক্তারা বলেন, ড. রশীদ আল ফারুকী ছিলেন সমাজ ও সমাজ বদলের একজন বড় মাপের চিন্তক ও রূপকার, একজন আদর্শবাদী দার্শনিক। ড. ফারুকী প্রচলিত সংস্কারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। সবাইকে লড়াই করার জন্য উদ্বুদ্ধ করেছেন। তাঁর লেখনীতে মানব মুক্তির কথা, মানবতার কথা, সমাজ পরিবর্তনের কথা উঠে এসেছে। এই প্রজন্মের প্রয়োজন তার পথ চিনে নিজেদের পথের কাটা সরানো। ১৯৭৫ এর রাজনৈতিক ট্রাজেডির পর মৌলবাদ ও পাকিস্তানি দর্শনে ফিরে যাওয়ার যে রাজনৈতিক-সামাজিক তোলপাড় চলে, তার বিরুদ্ধে ড. রশীদ আল ফারুকী সোচ্চার ছিলেন। বক্তারা এই পরিশ্রমী, সৎ, মানব মুক্তির জন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে যথাযথ সম্মান ও মর্যাদার দাবি জানান। বক্তারা আরো বলেন, ড. ফারুকী সাহিত্যে ধর্ম নিরপেক্ষ ধারণাটিকে শক্তিশালী করতে তার সকল প্রচেষ্টা নিয়োজিত করেছিলেন। আলোচনায় পর্বের শেষে সেলিম রেজা সাগরের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী সাইফুর রহমান, তাজুল ইসলাম, জয়া চৌধুরী, অনিমা রহমান, শারমিন আক্তার, ও দ্বীপান্বিতা চৌধুরী, বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করেন কণ্ঠনীড় ও প্রমা। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x