‘যদি একদিন’ কানাডায়

বৃহস্পতিবার , ২১ মার্চ, ২০১৯ at ১০:২১ পূর্বাহ্ণ
130

দ্বিতীয় সপ্তাহে এসে দেশের ৩৩টি প্রেক্ষাগৃহে চলছে তাহসান-শ্রাবন্তীর আলোচিত ছবি ‘যদি একদিন’। তবে দেশ পেরিয়ে বিদেশেও আলো ছড়ানোর ইঙ্গিত দিচ্ছে ছবিটি। জানা গেছে, ২২ মার্চ কানাডা দিয়ে শুরু হচ্ছে মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত এই ছবির বিদেশ যাত্রা। এবং সেটাকে রাজকীয় যাত্রা বললে খুব বেশি ভুল বলা হবে না। কারণ, এবারই প্রথম বাংলাদেশের কোনও ছবি প্রথম সপ্তাহে প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে প্রায় দুই শটি (১৯৬) শো! আর এটি চলবে সর্বাধিক ৮টি প্রেক্ষাগৃহে! বিষয়টি নিশ্চিত করলেন ছবিটির আন্তর্জাতিক পরিবেশক প্রতিষ্ঠান স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো বাংলাদেশ-এর প্রধান নির্বাহী সৈকত সালাহউদ্দিন। তিনি জানান, স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো’র পরিবেশনায় বিশ্ববাজারে ১৪তম বাংলাদেশি সিনেমা হচ্ছে ‘যদি একদিন’। বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এবং মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘যদি একদিন’ বিশ্ববাজারে এ মুহূর্তে সবচেয়ে আকাঙ্খিত দেশি চলচ্চিত্র বলেও মতামত দেন তিনি। পরিবেশক স্বপ্ন স্কেয়ারক্রোর পক্ষ থেকে জানানো হয়, কানাডার সব বড় শহর, যেমন টরন্টো, মিসিসাগা, অটোয়া, ক্যালগেরি, এডমন্টন, ভ্যানকুভার, উইনিপেগ, সাস্কাটুন-এর একটি করে ‘সিনেপ্লেক্সে’ লোকেশনে চলবে সিনেমাটি। প্রতিষ্ঠানটির প্রেসিডেন্ট মো. অলিউল্লাহ সজিব বলেন, এর আগে কানাডায় বাংলাদেশি সিনেমার ব্যবসায় ‘আয়নাবাজি’র রেকর্ড ভেঙেছে ‘দেবী’। ‘দেবী’তে দর্শক উপস্থিতির যে মাইলফলক বাংলাদেশি সিনেমা স্পর্শ করেছে, পারিবারিক গল্পে নির্মিত সিনেমা ‘যদি একদিন’ সে রেকর্ড ভেঙে ফেলার সম্ভাবনা রয়েছে বলে আমি মনে করছি। এদিকে ছবিটির পরিচালক মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ বলেন, দেশের ভেতর দর্শক-সমালোচকদের প্রচুর প্রশংসা অর্জন করছি আমরা। প্রথম সপ্তাহ থেকে এই সপ্তাহে এসে ছবিটির হল রিপোর্ট বেশ সুখকর। আশা করছি, দেশের পাশাপাশি বিদেশেও আমরা বড় সফলতা পাবো। কানাডার খবরটি সেই বার্তা দিচ্ছে আমাদের।

x