মোহাম্মদ জহির (ক্ষণজন্মা বঙ্গবন্ধু)

শনিবার , ১৭ মার্চ, ২০১৮ at ৮:১৬ পূর্বাহ্ণ
41

 হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ১৭ মার্চ। বাঙালি জাতির অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে যে ব্যক্তি বিশ্বের দরবারে অসীম সাহসিকতায় আজীবন লড়ে গেছেন, সেই মহান ব্যক্তি আমাদের প্রাণপ্রিয় বঙ্গবন্ধু জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৯২০ সালের এই দিনে। ফরিদপুর জেলার গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়া তাঁর জন্মস্থল। পিতা শেখ লুতফর রহমান। মাতা সায়েরা খাতুন। বাবামা’র আদরের ‘খোকা’ পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় এক ব্যক্তিত্বের আসনে অদিষ্ট হলেন, তা বাঙালি জাতির জন্য এক অবিস্মরণীয় অধ্যায়। তাঁর গভীর রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, আত্মত্যাগ এবং জনগণের প্রতি মমত্ববোধ শেখ মুজিবুর রহমানকে বিশ্বের ইতিহাসে স্বাধীন বাংলাদেশের রূপকার হিসেবে পরিচিতি এনে দিয়েছে। ১৭ মার্চ যেমন বঙ্গবন্ধুর জন্ম মাস, তেমনি এই মার্চ মাস বাঙালি জাতির জীবনেও অতীব গুরুত্বপূর্ণ । ৭মার্চ ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে যে ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন, তাতে তিনি রোপন করেছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের মানচিত্র এবং স্বাধীন দেশের অস্তিত্ব। তাঁরই আহ্বানে বাঙালি জাতি প্রতিবাদমুখর হয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলো। আমরা দেখতে পাই, ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ঘোষণা করেছিলেন। তাঁর ডাকেই সারা দেশের দেশপ্রেমী আপামর মানুষ পাকিস্তানী সৈন্যদের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নিয়েছিলো। দীর্ঘ নয় মাস সশস্ত্র যুদ্ধের পর বিজয় লাভ করে এবং বিশ্বের দরবারে স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ আত্মপ্রকাশ করে। ঘটনাবহুল মার্চ মাসে আমরা পেয়েছি শেখ মুজিবকে। পেয়েছি বিশ্বের স্মরণীয় ভাষণ, যা ইউনেস্কো কর্তৃক স্বীকৃতি লাভ করেছে। আমরা পেয়েছি তাঁর স্বাধীনতার ঘোষণা। শেখ মুজিব বাঙালি জাতির জীবনে তাই ক্ষণজন্মা মানুষ হিসেবে আমাদের কাছে চিরস্মরণীয়।

x