মেয়ের ছবি ফেসবুকে দেয়ার প্রতিবাদ করায়

চকরিয়ায় ভাগ্নের হাতে মামা খুন

চকরিয়া প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার , ১৪ জুন, ২০১৮ at ৪:৫৭ পূর্বাহ্ণ
521

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পাঁচবছর আগে সম্পর্কের সূত্র ধরে মামাতো বোনের সঙ্গে তোলা ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করার কারণ জানতে গিয়ে আপন ভাগ্নের হাতে প্রাণ দিতে হলো মামাকে। কয়েকদিন আগে এই ছবি ফেসবুকে দেখতে পেয়ে প্রতিবাদ করেন মামা। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিশও ডাকা হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ভাগ্নে গতকাল বুধবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে মামাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ বিকেলে ভাগ্নের স্ত্রীকে আটক করেছে। এর আগে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

নিহত মামার নাম মো. নুরুল আবছার (৪৫)। তিনি ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ভাঙারপাড়ার আব্বাস আহমদের পুত্র। এ ঘটনায় আটক করা হয় মামাকে ছুরিকাঘাতে হত্যাকারী ভাগ্নে জকির আলমের স্ত্রী হোসনে আরাকে (২২)। হত্যাকারী জকির একই এলাকার ফেরদৌস আহমদের কথিত ছেলে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, ভাগ্নে জকিরের বিয়ের প্রায় পাঁচবছর আগে আপন মামাতো বোনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল। সে সুবাদে দুইজন একইফ্রেমে ছবি তুলে। তাদের এই সম্পর্কের মধ্যে হোসনে আরাকে বিয়ে করে জকির আলম। কিন্তু গত কয়েকদিন আগে পুরোনো ছবি ফেসবুকে প্রচার করায় ুদ্ধ হন মামা নুরুল আবছার। তিনি ভাগ্নে জকিরের কাছে জানতে চান বিয়ের পরও তাঁর মেয়ের ছবি ফেসবুকে কেন দেওয়া হলো। সেই প্রশ্নের উত্তর না পাওয়ায় আবছার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের ডেকে সালিশ দেন। সালিশে উপস্থিত না হয়ে জকির চট্টগ্রাম শহরে নিজ স্ত্রী হোসনে আরার কাছে চলে যান। কিন্তু গতকাল বুধবার সকালে জকির ও তার স্ত্রী চট্টগ্রাম থেকে আসলে বাকবিতণ্ডা হয় মামা আবছারের সঙ্গে। এ সময় কোমর থেকে ছুরি বের করে মামার পেটে চালিয়ে দেয় জকির। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান আবছার। এর পর পরই জকির স্ত্রীর কাছ থেকে বোরকা খুঁজে নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের সূত্র ধরে পাঁচবছর আগে তোলা ছবি সম্প্রতি ফেসবুকে দেওয়ার প্রতিবাদ করায় ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হলো মামা আবছারকে। এ ঘটনায় ভাগ্নে জকির আলমকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করায় স্ত্রী হোসনে আরাকে আটক করা হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া খুনি জকিরকে ধরতে পুলিশ সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে মামলা নেওয়া হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।’

x