মেঠোপথের জলকুমারী

বুধবার , ৯ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৩:৫৯ পূর্বাহ্ণ
13

মেঠোপথ থিয়েটার ঢাকা একটি নাটকের দল। ২০১৭ সালের ২ জুন ক’জন তরুণ-তরুণী মিলে দলের প্রতিষ্ঠা করেন। ‘অতঃপর মাধো’ নাটকের মধ্যদিয়ে আবির্ভাব ঘটে মেঠোপথ থিয়েটারের। নাটকটি রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছিলেন ‘অলোক বসু’। ইতোমধ্যে দলটি কোরিয়া, ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে নাটকটির প্রদর্শনী করেছে।
সমপ্রতি ভারতের হুগলি জেলার সহজপাঠ থিয়েটারের সাথে যৌথ নাটক করার পরিকল্পনা করেছে দলটি। ৭ জানুয়ারি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে নাটকের টেকনিক্যাল ও ইনডোর শো করা হয়। আগামী ১৪ জানুয়ারি হুগলিতে এর উদ্বোধনী শো হবে।
মেঠোপথ থিয়েটার (বাংলাদেশ) ও সহজপাঠ থিয়েটার (ভারত) এর শিল্পীরা মিলে বাংলাদেশ ও ভারতের বিভিন্ন জায়গায় এই নাটকের প্রদর্শনী করবে। নাটকের নাম ‘জলকুমারী’। এই নাটকের রচনা এবং নির্দেশনায় আছেন বাংলাদেশের নির্দেশক দেবাশীষ ঘোষ। তিনি জানালেন, এই উদ্যোগকে প্রতিনিয়ত উৎসাহ দিয়েছেন দুই বাংলার দুই নাট্য গুনীজন গবেষক আশিস গোস্বামী এবং গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের অ্যাসিসটেন্ট সেক্রেটারী জেনারেল চন্দন রেজা। এই নাটকের মধ্য দিয়ে দুই বাংলার মানুষের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন তৈরি হবে বলেও প্রত্যাশা করেন তিনি। নাটকের সংগীত পরিকল্পনায় আছেন শিশির রহমান (বাংলাদেশ), সেট ও লাইট ডিজাইন করছেন পলাশ হেনড্রি সেন (বাংলাদেশ)। অভিনয়ে আছেন শামীমা আক্তার মুক্তা (বাংলাদেশ), জুবায়ের জাহিদ (বাংলাদেশ), তরুন চ্যাটার্জী (ভারত), তারক ব্যানার্জী (ভারত), তরুণ কুমার দে (ভারত)।

x