মেট্রোপলিটন চেম্বারের ভোগ্যপণ্য বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধন

চাল ২৫, চিনি ৪০ টাকা

বুধবার , ২২ মে, ২০১৯ at ৫:৩৭ পূর্বাহ্ণ
54

পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির (সিএমসিসিআই) উদ্যোগে গতকাল ২১ মে গরীব ও দুস্থ মানুষের জন্য ভর্তুকি মূল্যে অক্সিজেনস্থ কেডিএস গার্মেন্টস্‌ এর সম্মুখে ২য় ভোগ্য পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সাংসদ নজরুল ইসলাম চৌধুরী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সিএমসিসিআই সভাপতি খলিলুর রহমান, সহ-সভাপতি এ.এম. মাহবুব চৌধুরী এবং পরিচালক জসিম উদ্দিন চৌধুরী সহ মেট্রোপলিটন চেম্বারের সদস্য, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
সিএমসিসিআই সহ সভাপতি এএম মাহবুব চৌধুরী বলেন, গত ১৬ মে শনিবার আগ্রাবদস্থ সিএমসিসিআই কার্যালয়ের সম্মুখে ১ম পর্যায়ে ভর্তুকি মূল্যে বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। গতকাল ২য় পর্যায়ের বিক্রয় কার্যক্রম শুরু করছি। প্রতি বছর দুস্থ ও গরীব মানুষের সুবিধার্থে রমজানে ভর্তুকি মূল্যে বিক্রয় কার্যক্রম চালু করে থাকি। এ বছরও আমরা কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় চাল, চিনি ও তেল ভর্তুকি মূল্যে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিক্রয় করছি। পরিচালক জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, সাধারণ মানুষ যাতে রমজানে প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ভর্তুকি মূল্যে পেতে পারে সেজন্য আমরা বিক্রয় কার্যক্রম প্রতিবারের মতো এবারও চালু করেছি। আশা করি আগামীতেও এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
সিএমসিসিআই সভাপতি খলিলুর রহমান স্বাগত বক্তব্যে বলেন, আমরা আজকের অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম ১৪ আসনের সাংসদ মো: নজরুল ইসলাম চৌধুরীকে পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত হয়েছি। এ জন্য তিনি সিএমসিসিআই’র পক্ষ থেকে সাংসদের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এ বিক্রয় কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। আপনারা আমাদের দোয়া করবেন, আমরা যেন আগামীতেও এ ধরনের জনকল্যাণমূলক কাজ করতে পারি। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সাংসদ আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, সিএমসিসিআই কর্তৃক এ ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করায় আমি আন্তরিকভাবে খুশি হয়েছি। তিনি সিএমসিসিআই কর্তৃপক্ষের ন্যায় রমজান মাসে সাধারণ মানুষের জন্য অন্যান্য ব্যবসায়ীদেরও এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানান।
বিক্রয় কেন্দ্রে চালের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি কেজি ২৫ টাকা, চিনি প্রতি কেজি ৪০ টাকা এবং ভোজ্য তেল প্রতি বোতল (১ লিটার) ৭০ টাকা। জনপ্রতি ২ কেজি চিনি, ৫ কেজি চাউল এবং প্রতি বোতল (১ লিটার) সয়াবিন তেল নির্ধারণ করা হয়। বিক্রয় কার্যক্রম পুরো রমজান মাসে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x