মুহাম্মদ বাবুল হক বাবর (পরিবেশ রক্ষায় সত্তার খালটি বাঁচাতে এগিয়ে আসুন)

মঙ্গলবার , ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ at ৪:২৭ পূর্বাহ্ণ
20

: গহিরা শান্তির দ্বীপ হতে একটু পশ্চিমে কালাচাঁদ চৌধুরী হাটের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া মনমুগ্ধকর সত্তার খালটি এখন তার পূর্ব ঐতিহ্য হারাতে বসেছে।
ঐতিহ্যবাহী গহিরার বুক ছিড়ে একেবেঁকে বয়ে চলা এই খালটি আগের মতো আর মুগ্ধতা ছড়ায় না। কোন রকম স্মৃতি চিহ্ন নিয়ে অনাদরে অবহেলায় পড়ে আছে। এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় খালটির পূর্বের সেই প্রবল স্রোত, দু’পাড়ের সেই মনকাড়া প্রাকৃতিক নয়নাভিরাম দৃশ্য, জোয়ার-ভাটার টানে মাঝিদের নাও ছাড়ার দৃশ্য এখন আর দেখা যায় না বললেই চলে।রাঙামাটি, খাগড়াছড়িসহ আশপাশের এলাকা থেকে বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের নিয়ে আসা ছোট বড় শত শত কাঠ আর বাঁশে ভর্তি থাকার কারণে জোয়ার-ভাটার স্রোত না থাকায় খালটি প্রতিনিয়ত ভরাট হয়ে যাচ্ছে। কর্তৃপক্ষের আদেশ নিষেধের তোয়াক্কা না করে এক শ্রেণির লোক দাপটের সাথে নিজেদের আখের গোছানোর জন্য জায়গা দখলে ব্যস্ত থাকায় দিন দিন খালটির প্রশস্ততা হ্রাস পাচ্ছে।
এলাকার সচেতন মহলের মতে এই অবস্থা অব্যাহত থাকলে আগামীতে খালটির অস্থিত্বও পাওয়া যাবে না। গহিরা ও তার আশপাশের পরিবেশ রক্ষার্থে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উচিত খালের দখলকৃত জায়গা পুনরুদ্ধার সহ সত্তার খালটি রক্ষা করে পরিবেশ সংরক্ষণে তড়িৎ গতিতে এগিয়ে আসা।

x