মুহম্মদ মনসুরউদ্দীন : শেকড় সন্ধানী

বৃহস্পতিবার , ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৫:৪২ পূর্বাহ্ণ
23

মুহম্মদ মনসুরউদ্দীন – বিশিষ্ট লেখক, শিক্ষাবিদ, লোকগীতি সংগ্রাহক ও সম্পাদক। দশ খণ্ডে রচিত বাংলা লোক সংগীতের সংকলন গ্রন্থ ‘হারামণি’ সম্পাদনা করে তিনি বিশেষ খ্যাতি অর্জন করেন। আজ তাঁর ৩২তম মৃত্যুবার্ষিকী।
মনসুরউদ্দীনের জন্ম ১৯০৪ সালের ৩১ জানুয়ারি পাবনা জেলার মুরারীপুর গ্রামে এক কৃষক পরিবারে। পাবনায় স্কুল ও কলেজ জীবনের পাট চুকিয়ে রাজশাহী সরকারি কলেজ থেকে বি.এ পাস করেন তিনি। ১৯২৮ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্ডিয়ান ভার্নাকুলার বিভাগ থেকে বাংলায় প্রথম শ্রেণিতে এম.এ ডিগ্রি অর্জন করেন। কর্মজীবনের শুরু সহকারী স্কুল পরিদর্শক হিসেবে। এরপর দীর্ঘকাল অধ্যাপনা করেছেন। বাঙালি সংস্কৃতি এবং বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের প্রতি ছিল তাঁর গভীর অনুরাগ। স্বাধীন বাংলাদেশে বিভিন্ন সময়ে সামরিক সরকারের স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন সোচ্চার কণ্ঠ।
বেশ কিছুকাল ‘মাহে-নও’ পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মনসুরউদ্দীন বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার ও একুশে পদক অর্জন করেন। তাঁর রচিত উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলো হলো: ‘শিরণী’, ‘ধানের মঞ্জরী’, ‘আগরবাতী’, ‘বাংলা সাহিত্যে মুসলিম সাধনা’ [ তিন খণ্ডে রচিত], এবং ইরানের কবি। ১৯৮৭ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর বাঙালির শেকড় সন্ধানী কৃতি পুরুষ মনসুরউদ্দীন প্রয়াত হন।

x