মরিচ চাষে সচ্ছলতা আসছে অনেক পরিবারে

মাহবুব পলাশ : মীরসরাই

সোমবার , ১ অক্টোবর, ২০১৮ at ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ
30

মানব জীবনে জীবন ধারনের জন্য অত্যাবশ্যক প্রায় সকল খাবারের জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় প্রধান উপকরণ মরিচ। এই মরিচ এর ঝাল কখনো এতো বেড়ে যায় যে, চড়া মূল্যের কারণে অনেকের ক্রয়ক্ষমতার সীমানার বাহিরে ও চলে যায়। আর তাই এই মরিচ নিয়ে উঠে গণমাধ্যমে ও উঠে আসে নানা কথন। বিশেষ করে বর্ষা মওসুমে এর আবাদ কম বলে মূল্য আকাশচুম্বি হয়ে উঠে। কিন্তু এখন দিন বদলাচ্ছে। বর্ষাকালেও কৃষকরা এই মরিচ চাষে এগিয়ে আসছে বিভিন্ন উপজেলার কৃষকরা।
মীরসরাই উপজেলার ইছাখালীর হতদরিদ্র কৃষক রশিদুল ইসলাম বর্ষাকালীন সময়ে মরিচ চাষ করে সংসারে স্বচ্ছলতা এনেছেন। চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলার ইছাখালী ইউনিয়নের চরশরৎ গ্রামের বর্তমানে একজন সফল কৃষক রশিদ মিয়া কদিন আগেও অভাব ছিল তার নিত্যসঙ্গী। সংসারে অশান্তি লেগেই ছিল। বর্গাচাষী স্বামীর অভাব-অনটনের সংসার। এমনও দিন গেছে সারাদিন একবেলাই খাবার যোগাড় করতে কষ্ট হতো তাদের পরিবারের। দুই ছেলে আর তিন মেয়ে নিয়ে নিদারুণ কষ্টে চলতো তাদের দিন। এখন দিন পাল্টেছে। ছেলে-মেয়েরা এখন আর উপোষ থাকে না। তাদের লেখাপড়ার ব্যবস্থাও হয়েছে। শুধুমাত্র মরিচ উৎপাদন করেই সংসারে স্বচ্ছলতা এনেছেন তিনি।
পূর্ব খৈয়াছরার কৃষক গোপাল কৃষ্ণ জানায় এবার বর্ষা মওসুমেই ১০ গন্ডা জমিতে মরিচ চাষ করে ২০ হাজার টাকা অতিরিক্ত আয় করেছি। সাধারণত শ্রাবণ ভাদ্র মাসে বাজারে মরিচের দাম অনেক বেড়ে যায়। আর এই সময়ে মরিচ চাষ করতে পারলে ভালো দাম পাওয়া যায়। আর এখনকার মরিচ বিক্রি করতে দূরের বেপারীদেরও প্রয়োজন হয়না। মীরসরাই, বারইয়ারহাট, জোরারগঞ্জ, করেরহাট, বড়তাকিয়া, আবুতোরাব বাজারেই ২৫০টাকা থেকে ৩০০ টাকা। তাই পাইকারী দামে ও ভালো পাওয়া যায়।
মীরসরাই উপজেলা কৃষি সুপারভাইজার সৈয়দ নুরুল আলম জানায় পূর্বে এই অঞ্চলে বর্ষাকালীন সময়ে মরিচ চাষাবাদ প্রায় ছিলোই না। এখন চলতি বছরে প্রায় ১৫ হেক্টর জমিতে মরিচের আবাদ হয়েছে। এখানে মূলত সবুজ এবং লাল মরিচ উৎপাদন হয় বেশী । কম পুঁজিতে অনেক লাভ। সাহেরখালী গ্রামের কৃষক আনোয়ার হোসেন জানায় শুরুতে কিছু টাকা ধার নিয়ে আর কয়েক শতক জমি বর্গা নিয়ে আমি মরিচ চাষ শুরু করি। এখন আর জমি বর্গা নিতে হয় না। আমি নিজেই অল্প জমি কিনেছি।
মীরসরাই উপজেলা কৃষ কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ বলেন উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মরিচ চাষী কৃষক কৃষাণীদের যদি সঠিক প্রশিক্ষণ দিয়ে বর্ষাকালীন নানান সবজি চাষে উদ্বুদ্ধ করা যায় তাহলে মীরসরাইয়ে সারা বছর সবজি চাষে বিপ্লব সম্ভব।

x