‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ যুদ্ধের মতো’

স্পোর্টস ডেস্ক

রবিবার , ১৪ এপ্রিল, ২০১৯ at ৭:৫৭ পূর্বাহ্ণ
10

দুই দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি এতটা উত্তাল যে, ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচ মানেই বারুদে উত্তেজনা। তাই বিশ্বকাপে প্রতিবেশি দুই দেশের লড়াই যুদ্ধের চেয়ে কোনও অংশে কম নয় বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান বীরেন্দর শেবাগ। ১৬ জুন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মুখোমুখি হবে ভারত-পাকিস্তান। বিশ্বকাপে রবিন রাউন্ডের এই ম্যাচ ঘিরে ক্রিকেট ভক্তদের মনে উত্তেজনা চরমে। যদিও চরম আকাঙ্খিত ম্যাচটি বাতিলের দাবি তুলেছেন ভারতের অনেক সমর্থক ও সাবেক ক্রিকেটার। গত ফেব্রুয়ারিতে পুলওয়ামায় ভারতের মিলিটারি গাড়িবহরে হামলার প্রতিবাদে দাবিটি উঠেছিল। যদিও শেবাগ ম্যাচটির গুরুত্ব অন্যভাবে উপস্থাপন করেছেন।
সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে শেবাগের একসময়কার ওপেনিং পার্টনার গৌতম গম্ভীরও উচ্চারণ করেছিলেন, ‘ভুল করা হবে না যদি বিশ্বকাপে পাকিস্তান ম্যাচ বাতিল করা হয়।’ শেবাগ বিষয়টি বুঝতে পারছেন স্পষ্ট। তবে একই সঙ্গে ক্রিকেট মাঠে জবাবটা দেওয়ার প্রয়োজনীয়তার কথাও তুলে ধরেছেন তিনি। শুক্রবার গোয়ায় এক অনুষ্ঠানে তিনি জানিয়েছেন, বিশ্বকাপের ম্যাচটি নিশ্চিভাবেই জেতা উচিত ভারতের। বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের খেলা উচিত কিনা, এমন প্রশ্নে সাবেক ভারতীয় ওপেনার বলেছেন, ‘পাকিস্তানের সঙ্গে আমাদের যুদ্ধ করা উচিত কিনা (এবং পাকিস্তানের সঙ্গে আমরা খেলব কিনা), দুটো বিষয় নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। আমাদের সেটাই করা উচিত, যেটা দেশের জন্য মঙ্গল।’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘যখন ভারত ও পাকিস্তান কোনও ম্যাচ খেলে, তখন সেটা যুদ্ধের চেয়ে কোনও অংশে নয়। আমাদের যুদ্ধটা জিততে হবে, হারা যাবে না।’ ইংল্যান্ডের মাটিতে হতে যাওয়া বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে ৩০ মে। ভারত তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে ৫ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পাকিস্তানের বিশ্বকাপ শুরু হবে অবশ্য আগেই, ৩১ মে মিশন শুরু করবে তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।
পুলওয়ামা হামলায় ৪০ জন ভারতীয় জওয়ান শহীদ হওয়ার পর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ বয়কটের দাবি তুলেছেন ভারতের অনেকেই। শুধু ক্রিকেট নয়, সব খেলাতেই পাকিস্তানকে বয়কটের দাবি করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের ম্যাচ বয়কটের দাবি করেন অফ-স্পিনার হরভজন সিং। বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে ছেঁটে ফেলার পক্ষে আর্জি জানায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। তবে, ম্যাচ না খেলার পক্ষে নন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার। এদিকে পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতার, সাবেক অধিনায়ক জাভেদ মিঁয়াদাদ ম্যাচটি খেলার পক্ষে। তাদের দাবি, ঘটনাটি দুই দেশের রাজনৈতিক, ক্রীড়াঙ্গনে এর প্রভাব থাকা উচিত নয়। সাবেক দলপতি মিসবাহও তাদের সঙ্গে গলা মিলিয়ে আইসিসির কাছে আর্জি জানিয়েছেন, বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি যাতে নির্বিঘ্নে হয়।
রেকর্ড বলছে, কার্গিল যুদ্ধ চলার সময়ও ১৯৯৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেছে ভারত। ১৯৯৯ বিশ্বকাপও হয়েছিল ইংল্যান্ডের মাটিতে।
৪৭ রানে ম্যাচ জিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে জয়ের ধারা বজায় রেখেছিল মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনের দলটি। আগের সেই ম্যাচটিও হয়েছিল ম্যানচেস্টারে। কাকতালীয় হলেও ১৬ জুনের এবারের বিশ্বকাপের ম্যাচটিও ম্যানচেস্টারে।

x