ভারত-নিউজিল্যান্ড দুই অজেয় দলের লড়াই আজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার , ১৩ জুন, ২০১৯ at ৫:৪৯ পূর্বাহ্ণ
59

বিশ্বকাপের এবারের আসরে এখনো পর্যন্ত দুই অজেয় দল ভারত এবং নিউজিল্যান্ড। পয়েন্ট তালিকার এক এবং তিন নম্বরে অবস্থান তাদের। তবে এই দু দলের এক দলকে হারতে হবে আজ। যদি বৃষ্টি বাগড়া না বসায় তাহলে আজ এক দল প্রথবারের মত বিশ্বকাপের এবারের আসরে হারের স্বাদ নেবে। এখন প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে প্রথম হারের স্বাদ পাবে কোন দল। ভারত নাকি নিউজিল্যান্ড। এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট দল হিসেবে এসেছে বিরােট কোহলির ভারত। সে দিক থেকে তেমন ফেভারিটের তকমা না থাকলেও এশিয়ার তিন দেশ শ্রীলংকা, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে নিজেদের অবস্থানটাকে সৃুসংহত করেছে কিউইরা। আজ প্রথমবারের মত শক্ত প্রতিপক্ষের সামনে পড়তে যাচ্ছে কিউইরা। আর সে ম্যাচে কেমন করে সেটাই এখন দেখার বিষয়।
যদিও শক্তিশালী ভারতকে হারাতে দৃঢ় প্রত্যয়ী বলে জানালেন নিউজিল্যান্ডের পেসার লকি ফার্গুসন। তিনি বলেন ভারতের মত দলকে হারাতে হলে কঠিন সুযোগগুলোও হাতছাড়া করা যাবে না । সুযোগ কাজে লাগিয়ে চাপ তৈরি করে শুরুতেই উইকেট নিয়ে ম্যাচ নিয়ন্ত্রণে নিতে চান কিউইদের গতিময় এই পেসার। আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় ট্রেন্টব্রিজে ভারতের মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ড। এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে অপরাজিত রয়েছে কেবল এই দুটি দল। নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচে শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের দেখা পেয়েছে কেন উইলিয়ামসনের দল। কিউইরা নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে শ্রীলংকা এভং আফগানিস্তানকে সহজেই হারালেও বাংলাদেশের বিপক্ষে হারতে হারতে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টানা দুই জয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছে বিরাট কোহলির ভারত। এবারের আসরে এখনো জয়ের মুখ না দেখা দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর পর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকেও উড়িয়ে দিয়েছে কোহলিরা। তাই আত্নবিশ্বাসে বেশ ভরপুর ভারত।
এদিকে বিশ্বকাপের এবারের আসরে এ পর্যন্ত মুখোমুখি হওয়া সব প্রতিপক্ষকেই অলআউট করেছে নিউজিল্যান্ড। শ্রীলঙ্কাকে মাত্র ১৩৬ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর বাংলাদেশকে ২৪৪ রানে অলআউট করেছিল কিউইরা। শেষ ম্যাচে আফগানদের ১৭২ রানে থামিয়ে তুলে নেয় ৭ উইকেটের দাপুটে আরেকটি জয়। দলের সাফল্যে বড় অবদান টুর্নামেন্টে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৮ উইকেট নেওয়া ফার্গুসনের। প্রতিপক্ষকে সমীহ করার পাশাপাশি গতকাল মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে জয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করেন ফার্গুসন। তিনি বলেন ভারতের হয়ে যারা খেলছেন তারা বিশ্ব মানের খেলোয়াড়। আপনি তাদের উড়িয়ে দিতে পারবেন না। কিন্তু তাদের বিপক্ষে আপনি যথেষ্ট চাপ তৈরি করতে পারেন এবং তারপর একটা হাফ-চান্স সৃষ্টি করতে পারেন। সেটাই হতে পারে কাঙ্খিত উইকেট। ফার্গুসন বলেন অবশ্যই ভারত দারুন ক্রিকেট খেলছে এখন। তারা প্রতিযোগিতার অন্যতম সেরা দল। কিন্তু আমরা ইংল্যান্ডে তাদের বিপক্ষে খেলার সুযোগটা নিতে মুখিয়ে আছি। ফার্গুসন বলেণ আমি মনে করি, ভারতকে হারাতে হলে শুরুতে উইকেট তুলে নেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তা না পারা গেলে চাপ তৈরি করতে হবে এবং ডট বল দিতে হবে। ভারতের ব্যাটসম্যানদের কোন ধরনের সুযোগ দিতে চাননা এই কিউই পেসার। তিনি বলেন আমাদের চেষ্টা করতে হবে যাতে দ্রুত তাদের উইকেট তুলে নিতে পারি।
এদিকে আজ ভারত গুরুত্বপূর্ন ম্যাচে মাঠে নামছে দলের সেরা তারকা শিখর ধাওয়ানকে ছাড়াই। এই ওপেনার আগের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুন এক সেঞ্চুরি করে দলকে জিতিয়েছেন। কিন্তু ইনজুরির কারনে তার বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গেছে। তার পরিবর্তে রিশাভ প্রান্তকে ডাকা হয়েছে। তারপরও ভারত বেশ শক্তিশালী দল। দলের সব ব্যাটসম্যানই রয়েছে দারুণ ফর্মে। সে সাথে দলের বোলাররা। বিশেন করে জাসপ্রিত বুমরাহকে খেলাতেই পারছেননা প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যানরা। সে সাথে ভুবনেশ্বর কুমার কিংবা মোহাম্মদ শামিরা হয়ে উঠতে পারেন বল হাতে শক্তি প্রতিপক্ষ। আর ব্যাটিংয়ে ভারতের গভীরতার যেন শেষ নেই। তারপরও নিউজিল্যান্ড গত এক দুই বছর ধরে দারুণ ক্রিকেট খেলছে। তাইতো তাদের সমীহের চোখে না দেখার কোন উপাই নেই বলে মনে করছেন ভারতের টিম ম্যানেজম্যান্ট। ফেভারিটের তকমা নিয়ে বিশ্বকাপ খেলতে আসা ভারত এখনো পর্যন্ত সে পথেই রয়েছে। দুই শক্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে জিতে বেশ আত্মবিশ্বাসী রোহিত-কোহলিরা। এখন লক্ষ্য তাই আজকের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে অজেয় থাকা। আর সে সজন্য পুরো নিউজিল্যান্ড দলটাকে টার্গেট করে খেলতে চায় ভারত। তারপরও নিউজিল্যান্ডের হয়ে আসল কাজটা করছেন অভিজ্ঞ রস টেইলর ।
তাই তাকেও নজরে রাখছে ভারত। কারন তার বেশ কতা বলছে সাম্প্রতিক সময়ে। সব ফর্মেটেই দলের প্রয়োজন মিটিয়ে আসছেন তিনি। ২০০৬ সালে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওযার পর আর পিছনে পিরে তাকাতে হয়নি টেইলরকে। এ পর্যন্ত ২২১ ওয়ানডেতে ২০৫ ইনিংস খেলে বিশ সেঞ্চুরি ও ৪৮ হাফ সেঞ্চুরিতে মোট ৮১৫৬ রান করেছেন টেইলর। ৮৩.৪৮ স্ট্রাইক রেটে, গড়ে ৪৮.৫৪ রানের মালিক টেইলরের ব্যক্তিগ সর্বোচ্চ অপরাজিত ১৮১। তাই তাকেও লক্ষ্য বস্তুতে পরিণত করতে চায় ভারত। যদিও তাদের লক্ষ্য পুরো নিউজিল্যান্ড দল। দু দল এ পর্যন্ত ১০৬ বার মুখোমুখি হয়েছে। তাতে জয় অবশ্য ৫৫বার ভারতের। আর নিউজিল্যান্ডের জয় ৪৫টি। আজ কোন দল এগিয়ে যায় সেটাই এখন দেখার বিষয়।

x