ভারতের জন্য আলাদা উইকেট বানায় আইসিসি

স্পোর্টস ডেস্ক

বৃহস্পতিবার , ১৩ জুন, ২০১৯ at ৫:৪৬ পূর্বাহ্ণ
51

বিশ্বকাপে যেন একের পর এক বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ছে। মহেন্দ্র সিং ধোনির গ্লাভস, আম্পায়ারিং এবং বেল বিতর্কের পর এখন নতুন আরেক অভিযোগ তুলেছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। পাকিস্তান অধিনায়কের দাবি, বিশ্বকাপে ভারতের ইচ্ছামত উইকেট বানানো হচ্ছে। শুধু তাই নয় বিশ্বকাপের শিডিউলেও সুবিধা পাচ্ছে ভারত তেমন অভিযোগ উঠেছিল এর আগেই। বিশ্বকাপে তিন ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের আট নম্বরে আছে পাকিস্তান। বাউন্সি উইকেটে উপমহাদেশের ব্যাটসম্যানরা যে একটু নড়বড়ে থাকেন, সেটা সবাই জানে। এর ঝাঁঝ পাকিস্তান টের পেয়েছে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই। ওশানে থমাস, জেসন হোল্ডারদের তোপে ৭ উইকেটের লজ্জার হার বরণ করে সরফরাজ আহমেদের দল।
পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিইও নিউজের সূত্রমতে, অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের উইকেট নিয়েও খুশি ছিলেননা সরফরাজ। পিচে এতটাই ঘাস ছিল যে এখানে কোন সুবিধাই পাবেন না স্পিনাররা। তার মতে, শুধু পাকিস্তানের সঙ্গেই এরকম কঠিন উইকেট বানানো হয়। কিন্তু ভারতের বেলায় হয় না। সরফরাজের এক ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম জিইও নিউজ লিখেছে, অধিনায়ক বিস্মিত হয়ে গেছেন যে কেন শুধু ভারতের ম্যাচেই ব্যাটিং ও স্পিন সহায়ক উইকেট বানানো হয়।
এসব উইকেট সবসময় উপমহাদেশের জন্য সুবিধাদায়ক। কিন্তু পাকিস্তানকে টুর্নামেন্টে সবসময় কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয় ঘাসের মতো উইকেটে খেলে।
এদিকে ভারত-পাকিস্তানের লড়াইয়ে আগের সেই ঝাঁজ এখন আর নেই বললেই চলে। তবে লড়াইটা যে একেবারে রঙ হারায়নি তা টের পাওয়া যায় তাদের ম্যাচের আগ মুহূর্তে। মর্যাদার লড়াইয়ে কেউই কখনো ছাড় দিতে চায় না এক চুলও। আর সেই লড়াই যদি হয় বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে তাহলে তো ছাড় দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। এবারের বিশ্বকাপে আগামী ১৬ জুন ম্যানচেস্টারে দু’দল মুখোমুখি হওয়ার আগেই অবশ্য শুরু হয়ে গেছে কথার লড়াই। প্রথমে ভারতকে পাকিস্তানের বাবা বানিয়ে বিজ্ঞাপন তৈরি করেছিলো ভারতীয়রা। তাদের এমন কান্ডের জবাব দিতে ছাড়েনি পাকিস্তানও। পাল্টা জবাবে তারাও ভারতকে হেয় করে বানিয়েছে বিজ্ঞাপন।
সামপ্রতিক সময়ে দুই দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিও উত্তপ্ত। এর জের ধরেই অনেকে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বয়কটের কথাও বলেছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত তা আর হয়নি। কিন্তু সেই উত্তেজনা এখনো কমেনি বরং বেড়েছে। যে কারণে অনেকেই ভেবেছেন হয়ত এই ম্যাচে দেখা যাবে বাড়তি উদযাপন। তবে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা এই ম্যাচে বাড়তি কোনো উদযাপন করবেন না বলেই জানিয়েছেন পাকিস্তান দলের টিম ম্যানেজার তালাদ আলি। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানেরও কোনো নির্দেশনা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি। ক্রিকেটারদের সঙ্গে ইমরান খানের কোনো যোগাযোগ নেই বলেই দাবি তার।
তালাদ বলেন, খেলোয়াড়দের প্রতি অনেক বিধি-নিষেধ রয়েছে। ক্রিকেটাররা বিশ্বকাপ খেলতে আসার আগে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করেছিলো। এরপর আর ইমরান খানের খেলোয়াড়দের সাথে যোগাযোগ হয়নি। আমরা পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের নির্দেশনা মতো চলছি। তিনি আরো বলেন, ভারতের ম্যাচকে আমরা অন্য একটা সাধারণ ম্যাচের মতোই দেখছি।
অবশ্যই এটা বড় ম্যাচ। কিন্তু আমরা কেবল ভালো ক্রিকেট খেলার দিকেই তাকিয়ে আছি। আমাদের মাথায় রাজনৈতিক কিছু নেই। আমাদের ম্যাচ নিয়ে বিশেষ কোনো পরিকল্পনা নেই। কোচ, অধিনায়ক, টিম ম্যানেজমেন্ট সবাই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ নিয়ে পরিকল্পনা সাজাচ্ছে। তবে আমরা ভালো ক্রিকেট খেলার দিকেই বেশি নজর দেবো।

x