ব্যথায় অপারেশনের আগে ফিজিওথেরাপি

মো. মুজিবুল হক শ্যামল

শনিবার , ১৮ মে, ২০১৯ at ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ
106

যাঁরা কোমর, ঘাড়, হাঁটু, মেরুদণ্ডের ব্যথার জটিল সমস্যায় ভুগছেন, অপারেশন কিংবা চিকিৎসার জন্য দেশে বা দেশের বাইরে যেতে চাচ্ছেন, তাদের জন্য পরামর্শ- একবারের জন্য হলেও ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা সেবা নিয়ে দেখুন। ভালো হলে আর কি, আর নাহলে তারপর না হয় অন্য সেবা নিবেন। বাংলাদেশে এখন পাওয়া যাচ্ছে বিশ্বমানের ফিজিওথেরাপি সেবা। এমনটি জানালেন কয়েকজন ব্যথার রোগী ও চিকিৎসক। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এ যাবত সবচেয়ে বিশদ জরিপে এই তথ্য পেয়েছে, বিশেষকরে মেনিসকাস ছিঁড়ে গেছে, এই সন্দেহে সঙ্গে সঙ্গে অপারশেন করার কোনো প্রয়োজন নেই, বলেছেন গবেষকরা। ‘টর্ন মেনিসকাস’ একটি অতি সাধারণ ইনজুরি। মেনিসকাস বলে অর্ধচন্দ্রের আকারের কার্টিলেজ ডিস্কগুলোকে, যা হাঁটুকে কুশন করে। ৫০ এর ওপর এক-তৃতীয়াংশ মানুষেরই মেনিসকাসে একটা ‘টিয়ার’ বা ছেঁড়া জায়গা থাকে। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির আথ্রাইটিস বা গেঁটেবাত থাকলে তো কথাই নেই। তাহলে এ ধরনের ছেঁড়া থাকার সম্ভাবনা আরো বেশি। মেনিসকাস ছেঁড়া থাকলে তার আর যে কোনো লক্ষণ থাকবে, এমন কথা নেই। কিন্তু ব্যথাটা তো থাকবেই। এটি সংবাদ সংস্থা যে নতুন জরিপটির বিশদ বিবরণ দিয়েছে, তাতে অংশগ্রহণ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাতটি মূখ্য বিশ্ববিদ্যালয় ও অর্থোপেডিক সার্জারি সেন্টার। সরকারি অর্থানুকুল্যে সম্পাদিত জরিপে ৩৫১ জন আরথ্রাইটিস ও মেনিসকাসের পেশেন্টকে হয় সার্জারি, নয়তো ফিজিওথেরাপি করাতে বলা হয়।

পৃথক যাত্রায় : ফিজিওথেরাপি ঠিক গড়ে ন’টি সেশনের, সেই সঙ্গে বাড়িতে করার জন্য কিছু ব্যায়াম ও কসরত। ৬ মাস পরে দেখা যায়, যারা ‘আরথ্রোস্কোপিক সার্জারি’ করিয়েছেন, আর যারা ফিজিওথেরাপি করিয়েছেন, উভয়ই দলেরই একই পরিমাণ উন্নতি ঘটেছে। জরিপের ফলাফল প্রকাশিত হয় নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অফ মেডিসিন, অনলাইনে। জরিপের একজন পরিচালক, হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের এক বিশেষজ্ঞ ড.জেফ্রে কাটস বলেছেন-(‘সার্জারি কিংবা থেরাপি’) দুটো খুবই ভালো সিদ্ধান্ত। প্রথমে ফিজিওথেরাপি করে দেখাটা খুবই বাস্তবসম্মত কেননা তাতে ভালো হওয়ার সম্ভাবনা বেশ ভালো। সময় বেশি লাগলেও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বিহীন, ব্যয়বহুলতা নেই এবং খুবই সময় উপযোগী চিকিৎসা। আপনাকে ধৈর্য ধরে থেরাপি দিতে হবে, তাড়াহুড়া করা যাবে না, তখন থেরাপির উপকার পাবেন এবং নিয়ম-কানুনসমূহ মেনে চলবেন।
একই ফল : সবচেয়ে মজার কথা, পেশেন্টদের ৩০ শতাংশ জরিপের পুরো ৬ মাস থেরাপি করে কাটাতে পারেননি, তারা মাস তিনেকের মাথাতেই অপারেশন করিয়েছেন। কিন্তু আরো তিন মাস পরে দেখা গেছে, তাদের অবস্থা যারা অপারেশন করাননি, তাদের মতোই, তার চেয়ে ভালোও নয়, খারাপও নয়। বিশেষজ্ঞরা এখন আশা করছেন যে, এই জরিপের ফলে লক্ষ লক্ষ মানুষের কারণে কিংবা অকারণে হাঁটুর অপারেশন বন্ধ হবে, যার খরচও কিন্তু কম নয়। আর কিছু না হোক, সার্জারির খরচ থেরাপির তুলনায় প্রায় ৫ গুণ। বর্তমানে বাংলাদেশে সব জেলায় ব্যথার চিকিৎসার জন্য বেশকিছু ফিজিওথেরাপি সেন্টার রয়েছে। এসব সেন্টারে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত থেরাপিষ্ট রয়েছে। তবে মনে রাখবেন অবশ্যই যেন ফিজিওথেরাপি সেন্টার হয় কোন মতেই সেটি যেন সেরাজেম না হয়। অনেকে সেরাজেম সেন্টার কে ফিজিওথেরাপি সেন্টার মনে করে ভুল চিকিৎসা নিচ্ছেন। সেরাজেম হলো শুধুমাত্র একটি মেসেজ যন্ত্র বিক্রির প্রতিষ্ঠান। অনেকে ফ্রি মনে করে আরো সহজেই যাচ্ছেন, কিন্তু এখন থেকে এ ভুল আর করবেন না। এখন ফিজিওথেরাপিতে শারীরিক বিকলাঙ্গ, গাইনোকলজি ফিজিওথেরাপি, অকুপেশনাল, হ্যান্ড থেরাপি, স্পিচ এন্ড ল্যাংগুয়েজ থেরাপি, স্ট্রোক রিহ্যাব ইউনিট, হোম সার্ভিস। বিশেষকরে ম্যানুয়েল থেরাপি, ম্যানুপলোভিট থেরাপি ও ইলেকট্রো থেরাপি দেয়া হয়। থেরাপিতে ব্যাক পেইন, নেইক পেইন, কোন মাংস পেশির ব্যথা, আথ্রাইটিস বা বাতের ব্যথা , হাঁটু ব্যথা, রিউম্যাটয়েড আথ্রাইটিস, এঙ্কাইলজিং স্পন্ডাইলাইটিস, ডিস্ক প্রোলাপ্স, হাড় ভাঙ্গার পর থেরাপি, ফ্রোজেন সোল্ডার, স্পোর্টস ইনজুরি, সফট টিসু ইনজুরি, জয়েন্ট শক্ত হয়ে যাওয়া/ বেঁকে যাওয়া, মাংস পেশি ছোট-বড় হয়ে যাওয়া, যেকোন জয়েন্টের ব্যথা কমাতে থেরাপি খুবই কার্যকরী ভুমিকা পালন করে। এছাড়া নিউরোলজিক্যাল কন্ডিশনের চিকিৎসা করা হয়। যেমন যেকোন ধরনের প্যারালাইসিস বা অবশ হয়ে যাওয়া, স্পাইনাল কর্ড ইনজুরি বা মেরুদন্ডে আঘাত, মস্তিষ্কেও আঘাত, ফেসিয়াল পাল্‌িস, মুখ বেঁকে যাওয়া, মটর নিউরন ডিজিজ, সায়াটিকা, জিবিএস, পারকিন্সস ডিজিজ এবং অটিজম রোগের চিকিৎসা করা হয়।

x