বেকারত্বসহ ১০ দফা দাবি নিয়ে অনুষ্ঠান

রূপসী সীতাকুণ্ড করার প্রত্যয়

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

সোমবার , ১৫ অক্টোবর, ২০১৮ at ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
32

রাজনৈতিক আদর্শ যার যার সীতাকুণ্ড সবার। সীতাকুণ্ডের উন্নয়নে বেকারত্বদূরসহ ১০ দফা দাবি নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৩ অক্টোবর সকাল ১১টায় সীতাকুণ্ড জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মানবিক সেবা সংগঠনের উদ্যোগে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় রূপসী সীতাকুণ্ড করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বক্তারা। চট্টগ্রাম ট্যুরিস্ট পুলিশের ডিআইজি মো. মুসলিম এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ডঃ মো. ফসিউল আলম। সীতাকুণ্ড সমিতির সভাপতি লায়ন গিয়াস উদ্দীনের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা কামাল চৌধুরী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ ইকরাম, শিল্পপতি আলহাজ্ব মো. ইমরান, সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. দেলওয়ার হোসেন, এস আই মো. জাহেদুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার আজিজুল হক, খোরশেদ আলম, বর্নালী ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মছিউদ্দৌলা, সীতাকুণ্ড সমিতির নব নির্বাচিত সম্পাদক নাছির উদ্দীন মানিক, পৌর ব্যবসায়ী কমিটির সম্পাদক মোহাম্মদ বেলাল হোসেন, সীতাকুণ্ড অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন এর সেক্রেটারি মো. জাহাঙ্গীর আলম বিএসসি। সভায় মতামত প্রদান করেন সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সাবেক সম্পাদক কাইয়ুম চৌধুরী, কবি আব্দুস শুক্কুর চৌধুরী, বিবর্তন ক্লাবের সভাপতি লায়ন আলী আকবর জাসেদ, শৈলীর প্রধান নির্বাহী সাংবাদিক নাছির উদ্দীন অনিক, নক্‌সী নাহিদ চৌধুরী, প্রগতিশীল লেখক ফোরামে মো. শিহাবউদ্দিন, ব্লাড ডোনেট সদস্য কামরুল আলম, কাকলী ক্লাবের সভাপতি এম এইচ কাইয়ুম, মেঘমল্লার খেলাঘর আসরের সভাপতি তপন মজুমদার, সীতাকুণ্ড সাংস্কৃতিক পরিষদের সম্পাদক আমজাদ হোসেন, কুমিরা ইকরা পাঠাগারের মো. নুরুল আনোনায়, মো. ইলিয়াছ আলী, ইসহাক মিয়া স্মৃতি সংসদের মো. সাকিব, বিএসএফ এর মো. সোহেল মুন্না, প্রথম প্রহর ফাউন্ডশনের মো. সাদেক, সীতাকুণ্ড সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি মো. ইউনুচ, বাড়বকুণ্ড ছাত্র সংসদের তন্ময় বড়ুয়া প্রমুখ। সীতাকুণ্ডের উন্নয়নে বক্তারা ১০ দফা দাবি পেশ করেন, তা হলো- সীতাকুণ্ডে সকল কলকারখানায় ৫০% স্থানীয় কোটা চাই, টাকার অভাবে কারো শিক্ষা জীবন ব্যাহত হবে না, কেউ বিনা চিকিৎসায় মারা যাবে না, কন্যাদায়গ্রস্ত পিতার মেয়ের বিয়ে আটকে থাকবে না, কেউ না খেয়ে মারা যাবে না, সীতাকুণ্ডবাসীর বসতবাড়ি, ফসলি জমি জবর দখল হবে না, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত সীতাকুণ্ড, নিরাপদ সড়ক ও পর্যাপ্ত গণপরিবহন চাই, সীতাকুণ্ডে পর্যটন স্পটসমূহ সরকারি স্বীকৃতি চাই, সীতাকুণ্ডের কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন। এই ১০দফা দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ফসিউল আলমকে আহ্বায়ক, চট্টগ্রাম ট্যুরিস্ট পুলিশের ডিআইজি মুসলিম উদ্দীনকে সদস্য সচিব এবং সীতাকুণ্ড সমিতির সভাপতি গিয়াস উদ্দিনকে সমন্বয়ক করে একটি কমিটি করা হয়েছে।

x