বিয়ের আগেই জানিয়ে দিন

রুহি আফরোজ

রবিবার , ৫ আগস্ট, ২০১৮ at ৮:১৫ পূর্বাহ্ণ
143

বিয়ে, জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের একটি। জীবন জার্নিতে সঠিক জীবনসঙ্গী পাওয়াটা সত্যি ভাগ্যের বিষয়। বিয়ে নিয়ে সবার মনেই অনেক স্বপ্ন থাকে, থাকে কিছু শঙ্কাও। যারা নতুন জীবন শুরু করতে যাচ্ছেন অথবা বিয়ের কথা ভাবছেন, বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগেই কয়েকটি বিষয় জেনে নিন, আর এসব বিষয়ে নিজের অবস্থানও পরিষ্কার করে জানিয়ে দিন।

বিয়ের দিন থেকেই আসলে জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু। দু’টি মানুষের সঙ্গে জড়িয়ে থাকে আরও অনেক দায়িত্ব, যা কিনা সামলে নিতে হয়, দুজন মিলেই। বিয়ের আগে যে কথাগুলো বলে নেবেন:

আর্থিক অবস্থা

আমাদের সবার অর্থনৈতিক অবস্থা এক হয় না, তবে নতুন যে মানুষটি আপনার জীবনসঙ্গী হবেন, তাকে কিন্তু আপনার সঠিক অবস্থাটাই জানাতে হবে। যেমন আপনার মাসিক ইনকাম কত, সেই অর্থ আয়ের পথ কী, খরচ হয় কেমন, কোনো সেভিংস রয়েছে কিনা। অথবা এই টাকা থেকে সামনে কীভাবে সংসার চালিয়ে নিতে হবে। সঙ্গীর যদি এই বিষয়ে ধারণা থাকে, তবে আকাশকুসুম চিন্তা না করে নতুন জীবনে এসে নিজের চাহিদাও সেই অনুযায়ী রাখবেন। যদি সঙ্গীর বিষয়টি জানা না থাকে, তবে প্রত্যাশা আর প্রাপ্তির মধ্যে ব্যবধান তৈরি হবে। আর এটি আপনাদের দাম্পত্য জীবনে প্রভাব ফেলবে প্রতিদিনই।

সন্তান

বিয়ের আগেই বাচ্চার বিষয়ে কথা বলতে অস্বস্তি লাগছে? কিন্তু এটা জীবনের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। মনে করুন আপনি একজন স্টুডেন্ট হয়তো অনার্স শেষের দিকে। পরিবার থেকে প্রতিষ্ঠিত ছেলের সঙ্গে বিয়ের কথা হচ্ছে। তিনি এবং তার পরিবার বিয়ের পরদিন থেকেই বাচ্চার বিষয়ে আপনাকে চাপ দিলেন, অথচ সময় পেলে আপনার পড়াশোনাটা গুছিয়ে নিতে পারতেন। হয়ত একটা ভালো জবও হতে পারত। কী করবেন তখন? নিজেদের মধ্যে অশান্তি শুরু হবে। তার চেয়ে বরং আগেই আপনার বিষয়টি বলে নিলে ভালো, যে এখন আপনি পড়াটা শেষ করে এরপর একটা জবে জয়েন করতে চান। নতুন সংসারের সবার সঙ্গে খুব ভালো একটা সম্পর্ক তৈরি করতেও তো সময় প্রয়োজন। আর দুইটা বছর দু’জন অনেক ঘুরে জীবনটা উপভোগ করতে চান, এরপর সময় করে দু’জন মিলেই বাচ্চার সিদ্ধান্ত নেবেন।

একক না যৌথ

আপনার সবার সঙ্গে থাকতে ভালো লাগে, না একা, আর আপনার সঙ্গীর? বিয়ের আগে অবশ্যই এটি ক্লিয়ার করে নিন। আপনারা কেমন পরিবারে থাকবেন। কাজের প্রয়োজনে দু’জন মিলে ছোট সংসার করবেন, না সবার সঙ্গে যৌথ পরিবারে থাকতে হবে। যদি যৌথ পরিবারে থাকতে হয়, তবে আপনাকেই পুরো পরিবার সম্পর্কে একটি ধারণা আগেই সঙ্গীকে দিয়ে দিতে হবে।

কার সঙ্গে কীভাবে মিশতে হবে, পরিবারে কার কি দায়িত্ব পালন করতে হয়, আপনার পরিবারে বিশেষ করে মেয়েদের জন্য কি ধরনের সুযোগ রয়েছে। কোন ধরনের পোশাক বাড়ির অন্য বউরা পরেন এটাও বলে রাখুন। যিনি আপনার জীবনসঙ্গী হয়ে আসবেন, তার আপনার পরিবার সম্পর্কে যত ভালো ধারণা থাকবে, নতুন সংসারে এসে সবার মন জয় করাটাও ততটাই সহজ হবে।

সব কিছু জেনেবুঝেই দু’জন আলাদা মানুষ সারা জীবনের জন্য এক হয়ে চলার সিদ্ধান্ত নিন। অবশ্যই সঠিক কথাগুলো বা অবস্থাটাই তুলে ধরবেন, কারণ দু’দিন পরই সঙ্গী নিজেই সব দেখতে পাবেন। তখন যেন আপনার সম্পর্কে তার শ্রদ্ধাবোধ আরও বেড়ে যায়।

x