বান্দরবানে শিক্ষক বরখাস্ত, প্রধান শিক্ষককে বদলি

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ

বান্দরবান প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার , ৪ জুলাই, ২০১৯ at ৭:২৩ অপরাহ্ণ
288

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার ছবি প্রকাশ হওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক মুজিবুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এছাড়াও যৌন হেনস্থায় প্রশ্রয়দাতা শিক্ষকের বড় ভাই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হামিদুল হককে অন্যত্র বদলি করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) জেলা সমন্বয় সভা শেষে বদলির বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. তবিবুর রহমান।

শিক্ষা বিভাগ ও স্থানীয়রা জানায়, জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মুজিবুল হক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর সঙ্গে শ্রেণীকক্ষ এবং নির্জন এলাকায় অন্তরঙ্গ অবস্থায় ছবি ধারণ করে। প্রায় ৫ বছর পূর্বে তোলা আপত্তিকর ছবিগুলো সম্প্রতি গণমাধ্যমসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। বিষয়টি নিয়ে জেলা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে সর্বমহলে।

ঘটনাটি শিক্ষা বিভাগের নজরে আসে এবং যৌন হেনস্থার বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় অভিযুক্ত তুমব্রু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মুজিবুল হককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত এবং বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অভিযুক্তের বড় ভাই হামিদুল হককে কক্সবাজারের ঈদগড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করা হয়েছে। ছবি প্রকাশ হওয়া ছাত্রী ছাড়াও আরও কয়েকজন ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ রয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা শিক্ষা অফিসার কামাল হোসেন বলেন, ‘বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর ছবি প্রকাশ হওয়ার ঘটনায় সহকারী শিক্ষক মুজিবুল হক দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়াও অভিযুক্ত শিক্ষকের বড় ভাই ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হামিদুল হককে অন্যত্র বদলি করা হয়েছে।’

এদিকে অভিযুক্ত শিক্ষকদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে অভিযুক্ত শিক্ষককে বরখাস্ত এবং প্রধান শিক্ষককে বদলি করায় তুমব্রু এলাকায় ছাত্রছাত্রী-অভিভাবকরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে।

যৌন হেনস্থাকারী শিক্ষকের প্রশ্রয়দাতা প্রধান শিক্ষক বড় ভাইকে ঈদগড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করার খবরে ঈদগড় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

x