বাংলাদেশ-ভারতের তিন নদীপথে চলবে বিলাস তরী

রবিবার , ৪ নভেম্বর, ২০১৮ at ৮:২৫ পূর্বাহ্ণ
357

বাংলাদেশ-ভারতের চুক্তি স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে গঙ্গা-পদ্মা-ব্রহ্মপুত্র দিয়ে কলকাতা-ঢাকা-গুয়াহাটি যাওয়ার জলপথ উন্মুক্ত হল নৌ ভ্রমণপ্রেমীদের জন্য। এতদিন মালবাহী জাহাজ চলাচল করলেও দুই দেশের মধ্যে এই জলপথে বিলাসবহুল জাহাজও চলতে পারবে আসছে মার্চ থেকেই। খবর বিডিনিউজের।
গত ২৪ অক্টোবর ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে লো মেরিডিয়ান হোটেলে ‘প্রোটোকল অন ইনল্যান্ড ট্রানজিট অ্যান্ড ট্রেড (পিডব্লিউটিসি)’ এর ১৯তম স্থায়ী কমিটির সভায় দুই দেশের সম্মতিতে এই সিদ্ধান্ত হয়। সভায় নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশের যুগ্ম সচিব প্রমোদ কুমার বড়াল এবং অভ্যন্তরীণ জলপথ পরিবহন সংস্থার চেয়ারম্যান প্রবীর পাণ্ডে। পরদিন বৃহস্পতিবার চুক্তি স্বাক্ষর হয় বাংলাদেশের নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুস সামাদ এবং ভারতের জাহাজ মন্ত্রণালয়ের সচিব গোপাল কৃষ্ণার উপস্থিতিতে। ভারতের গণমাধ্যমেও জলপথ উন্মুক্ত করার এই খবরটি প্রকাশিত হয়েছে।
বাংলাদেশের নৌ মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুস সামাদকে উদ্ধৃত করে টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, বেসরকারি খাতকে দুই দেশের মধ্যবর্তী এই ১,৫৩৯ কিলোমিটার জলপথে বিলাসবহুল জাহাজ নামানোর আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, ভারতের চেন্নাই থেকে বাংলাদেশের কক্সবাজারের মধ্যে সমুদ্রতরী চালনায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুমতি দেওয়ায় দুই দেশই সম্মত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, কলকাতার প্রমোদতরী ‘গঙ্গা ভয়েজার’ আগামী বছর মার্চের শেষে এই রুটে তাদের প্রথম জাহাজটির যাত্রা শুরু করতে আগ্রহী। ভারতের শিপিং মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, “আমরা আনন্দিত যে ব্যবসায়ীরা আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এই রুটে সুন্দরবনসহ আরো অনেক দর্শনীয় স্থানের পাশ দিয়ে ভ্রমণের সুযোগ মিলবে।আজীবন মনে রাখার মত একটি অভিজ্ঞতা হবে এই যাত্রা।”

x