‘বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি বিশ্বকে চমকে দেবে’

বৃহস্পতিবার , ৯ মে, ২০১৯ at ১০:৩৩ পূর্বাহ্ণ
76

সামনের দশকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি বিশ্ববাসীকে চমকে দেবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেছেন, অধিক ফলনশীল জাতের ধান আমরা উদ্ভাবন করছি। যদিও এ বিষয়ে চীন অনেক এগিয়ে রয়েছে। মানসম্মত ও পুষ্টি সমৃদ্ধ খাদ্য সরকারের বড় চ্যালেঞ্জ। আমরা এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে কৃষির আধুনিকায়নের মাধ্যমে জনগণের মানসম্মত খাদ্য ও পুষ্টি নিশ্চিত করে ২০৪১ সালের আগেই উন্নত বাংলাদেশ গড়তে সব খাতে কাজ করে যাচ্ছি। খবর বাংলানিউজের।
মঙ্গলবার (৭ মে) কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাকের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন চীনের ভাইস মিনিস্টার অব এগ্রিকালচার অ্যান্ড রুরাল অ্যাফেয়ারস কিউইউ ডংযো। সাক্ষাৎকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন। এসময় কৃষিমন্ত্রী এও বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে অন্যতম সহযোগী চীন। বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী নতুন কিছু নয়, এ সম্পর্ক প্রাচীন। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও কৃষি, বিনিয়োগ এবং শিল্প-বাণিজ্যে চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের বিস্তার চায় সরকার। সাক্ষাতে দুই দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট নানা বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়। পরে কিউইউ ডংযো বলেন, চীন বাংলাদেশে অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার জন্য কাজ করছে। চীনের বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। এদেশের ভৌগলিক অবস্থান, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং মানুষের কর্মঠ ও বন্ধুসুলভ আচরণ ব্যবসায় খুবই ইতিবাচক। এছাড়া কৃষির টেকসই উন্নয়নের জন্য চীন সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে উল্লেখ্য করেন তিনি।

x