বাঁশখালীর সরলে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত ৩

বাঁশখালী প্রতিনিধি

শুক্রবার , ১৪ জুন, ২০১৯ at ১০:৩২ অপরাহ্ণ
93

বাঁশখালীর সন্ত্রাসী জনপদ সরল ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মধ্যম সরল গ্রামে আজ শুক্রবার (১৪ জুন) সন্ধ্যায় সন্ত্রাসীদের ছোঁড়া গুলিতে ৩জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

আহত ৩ জনকে বাঁশখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তাদেরকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয় বলে হাসপাতালে সূত্রে জানা যায়।

ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

জানা যায়, উপজেলার সরল ইউনিয়নের হাজীরখীল বাজার থেকে বাজার করে বাড়ি ফেরার পথে স্থানীয় মোহাম্মদ হোছন ও আহমদ কবিরের কাছ থেকে মাছ ও তরিতরকারি কেড়ে নেয় প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জাফর আহমদ গ্রুপের লোকজন মধ্যম সরল নোয়াপাড়া মসজিদের দক্ষিণ পার্শ্বে শীল পাড়া এলাকায় এলোপাথাড়ি গুলি বর্ষণ করে।

এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয় আশরাফ আলীর পুত্র মো. হোসেন (৩৫), মো. আলীর পুত্র মো. লোকমান (১২), খলিলুর রহমানের পুত্র মো. ফরহাদ (১৮)।

আহতদের প্রথমে বাঁশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

বাঁশখালী হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক ডা. জাফরিন জাহান জিতি জানান, সরলের ঘটনায় আহত ৩ জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সরল ইউনিয়নে দীর্ঘদিন ধরে মেম্বার জাফর আহমদ গ্রুপ ও নুর মোহাম্মদ গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এই দুই গ্রুপের প্রতিনিয়ত সংঘর্ষের কারণে এলাকার লোকজন সব সময় আতংক ও ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে দিনযাপন করে।

বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, ‘সরলে গুলিবর্ষণের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। এ ঘটনায় ৩ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে খবর পেয়েছি। ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।’

x