বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত

টেকনাফ প্রতিনিধি

রবিবার , ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ১০:৩১ পূর্বাহ্ণ
265

টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই রোহিঙ্গা মাদক কারবারি নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ১২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) ভোরে টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
নিহত দু’জন হলেন, টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই ব্লকের দিল মোহাম্মদ (৩২) ও তার স্ত্রী জাহেদা (২২)।

পুলিশের দাবি, এ ঘটনায় পুলিশের এক সহকারী উপ-পরির্দশকসহ (এএসআই) তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে পুলিশ লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি দেশীয় তৈরি থ্রি কোয়াটার বন্দুকসহ ডাকাত দলের সঙ্গে জড়িত ও মাদক কারবারি জাহেদা ও দিল মোহাম্মদ নামে রোহিঙ্গা দম্পতি এবং শফি উল্লাহ নামে তাদের এক সহযোগীকে আটক করা হয়।

পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ভোরে লেদার ২৪ নম্বর ক্যাম্পের সি-ব্লক এলাকায় গোপন স্থানে লুকিয়ে রাখা অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দিল মোহাম্মদের সহযোগী ডাকাত দলের সদস্যরা আটকদের ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে।

আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের গুলি বিনিময়কালে আটক ডাকাত ও ইয়াবা কারবারি দিল মোহাম্মদ ও জাহেদা গুলিবিদ্ধ হন।

পরে তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দু’টি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও নয় রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- এএসআই নিজাম, কনস্টেবল শাহাদত ও সুদর্শন। আহতদের টেকনাফ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

x