ফ্রিজে রাখা মাংস দিয়ে

রেসিপি দিয়েছেন ফারহানা সুমী

রবিবার , ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৬:৪৬ পূর্বাহ্ণ
89

কিমা বিরিয়ানি

উপকরণ: গরু/খাসির কিমা ১ কেজি, আদা বাটা ২ টে চামচ, রসুন বাটা ২ টে চামচ, পেঁয়াজ ১ কাপ, তেল ১ কাপ, হলুদ- ১/২ চামচ, লবণ- স্বাদমতো, দই- ১/২ কাপ, টমেটো সস- ৩ টে চামচ, কিশমিশ- ১ টে চামচ, কেওড়া জল- পরিমাণমতো, গুঁড়ো মশলা-শুকনো মরিচ ৫ টা, আস্ত ধনে ১ টে চামচ, জিরা ১ টে চামচ, এলাচ ৫ টা, আস্ত গোল মরিচ ১ চা চামচ, লং ৪ টা, জায়ফল ১টা ভেঙে চার ভাগের এক ভাগ, জয়ত্রী ১টা ফুল।
ওপরের সব মশলা অল্প আঁচে তাওয়ায় টেলে নিয়ে ব্লেন্ডারে গুঁড়ো করে নিন। এই গুঁড়োর সাথে এক চা চামচ কর্নফ্লাওয়ার মিশাবেন। এই মশলা এক কেজি কিমার জন্য সবটুকু লাগবে।
বিরিয়ানির কিমা রান্না: হাঁড়িতে তেল ঢেলে পেঁয়াজ কুচি দিন। পেঁয়াজ নরম হলে আদা, রসুন, হলুদ, লবণ, দই, টমেটো সস দিয়ে ভালো করে মিশান। গুঁড়ো মশলা সবটা দিয়ে দিন। পানি দিয়ে মশলা কষিয়ে নিন। তেল ওপরে উঠলে কিমা দিয়ে নেড়েচেড়ে ঢাকনা দিয়ে মিডিয়াম আঁচে রান্না করুন দশ মিনিট। মাঝে মাঝে নেড়ে দেবেন। কিমা তাড়াতাড়ি রান্না হয়ে যায়। তেল ওপরে উঠে এলে কিমা চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন।
বিরিয়ানি রান্না: যা যা প্রয়োজন, চিনিগুড়া চাল ১ কেজি, পানি ডাবল ২ লিটার, গুঁড়ো দুধ ১ কাপ, এলাচ ৪টা, দারুচিনি ১ টুকরো, তেজপাতা ২টা, পেঁয়াজ বেরেস্তা- ১/২ কাপ, লবণ- স্বাদমতো।
প্রণালি : চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন ১ ঘণ্টা আগে। খেয়াল করবেন কিমার মাংস রান্না শেষে কিমায় যে তেল ব্যবহার করেছিলেন সেটা কিমা থেকে আলাদা হয়ে আছে রান্নার পরেই। সেখান থেকে চামচে চেপে পুরাটা তেল বিরিয়ানির চালের জন্য মাপা পানির সাথে মেশাবেন।
হাঁড়িতে কিমার তেল, পানি, গুঁড়ো দুধ, এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা দিয়ে ঢাকনা দিয়ে দিন। পানি ফুটে উঠলে চাল দিন। লবণ যোগ করুন। উচ্চ তাপে একবার ফুটিয়ে নিয়ে আঁচ কমিয়ে পোলাও রান্না করুন। পানি শুকিয়ে গেলে এক বাটি পোলাও তুলে সে জায়গায় রান্না কিমা ঢেলে দিন। নাড়বেন না চাল ভেঙে যাবে। শুধু মাঝখানে কিমা রেখে ওপরে পোলাও দিয়ে ঢেকে দেবেন।
পোলাওর ওপরে বেরেস্তা ছিটিয়ে দিয়ে ঢাকনা বন্ধ করে একটা তাওয়ার ওপর বিরিয়ানির হাঁড়ি বসিয়ে কম আঁচে ১৫ মিনিট দমে রাখুন। ১৫ মিনিট পর চুলা থেকে হাঁড়ি নামিয়ে ঢাকনা বন্ধ অবস্থায় আরও ১০ মিনিট দমে রাখুন। এরপর পরিবেশন করুন।

গোলা কাবাব

উপকরণ: গরুর কিমা/ খাসির কিমা ৫০০ গ্রাম, বেসন টেলে নেয়া ২ টে চামচ, কর্নফ্লাওয়ার ১ টে চামচ, পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ, ধনেপাতা কুচি ১/২ কাপ, কাঁচামরিচ কুচি- ৪/৫ টা, লেবু ২ টে চামচ, আদা রসুন বাটা ২ টে চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, ভাজা ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া- ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া- স্বাদমতো, হলুদ- ১/২ চা চামচ, চাটমসলা- ১ চা চামচ, লবণ- স্বাদমতো।
প্রণালি: মাংসের সাথে সব উপাদান একসাথে মিক্সিং বা ফুড প্রসেসারে দিয়ে মিক্স করে নিন। একটা প্লেটে নিয়ে হাত দিয়ে আবার ভালো করে কাবাব মিক্স মিশিয়ে নিন। এবার এক মুঠো কাবাব মিক্স হাতে নিয়ে ভালো করে চেপে চেপে ওভাল সাইজ দিন কাবাবে। একটা স্ট্র দিয়ে কাবাবের মাঝে একটা ফুটো করে দিন।
সব কাবাব একসাথে বানিয়ে নিয়ে প্যানে ২ টে চামচ তেল দিয়ে আস্তে আস্তে কাবাব ভেজে নিন। উল্টেপাল্টে কাবাবের চারিদিক সোনালি করে ভেজে নেবেন। একটা তাওয়া গরম করে এক টে চামচ তেল দিন। তেল গরম হলে ১/২ কাপ পেঁয়াজ কুচি দিয়ে তাতে ভাজা কাবাব দিয়ে দিন। নেড়েচেড়ে মিশিয়ে নিন পেঁয়াজ আর কাবাব।
এটা অংশটুকু চাইলে বাদও দিতে পারেন, এটা ছাড়াও শুধু কাবাব পরিবেশন করতে পারেন। তবে পেঁয়াজের এই সিজলিং কাবাবে একটা আলাদা ফ্লেভার এনে দেবে।

ভেজিটেবল বিফ স্যুপ

উপকরণ : বিফ কিমা ৪০০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ১টি, আলু কিউব করা ৩টি, গাজর কিউব করা- ৩টি, বরবটি সেদ্ধ করা ২ বাটি, শশা কিউব করা ২টি, টমেটো জুস ২ কাপ, লবণ স্বাদমতো, টমেটো সস ৩ চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, বিফস্টক ১ কাপ, পানি ২ কাপ, তেল- ২ টেবিল চামচ
প্রণালি : একটি পাত্রে তেল দিয়ে তাতে বিফ কিমা দিয়ে কষান। কিছুক্ষণ কষানো হলে এতে গোলমরিচ গুঁড়া, লবণ, আলু, গাজর, পেঁয়াজ দিয়ে ১০/১৫ মিনিট রান্না করুন। কিমা বাদামি হয়ে এলে বিফস্টক, টমেটো সস, টমেটো জুস, পানি, শশা, বরবটি দিন। এবার মৃদু আঁচে ২০ মিনিট রান্না করুন। সব সবজি ঠিকমতো সেদ্ধ হয়ে গেলে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার ভেজিটেবল বিফ স্যুপ।

x