ফিল্ডিংয়ে আত্মবিশ্বাস বাড়াতে ‘ওয়ান হ্যান্ডেড ক্যাচিং’

বুধবার , ২৯ আগস্ট, ২০১৮ at ৬:১০ পূর্বাহ্ণ
29

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে টাইগারদের ব্যাটিং, বোলিং আপ টু দ্য মার্কহলেও হতশ্রী ফিল্ডিং প্রায়শই সমালোচনার জন্ম দেয়। অনেক ম্যাচে তা আবার নিদারুন হতাশার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। পয়েন্ট, গালি, মিড অন, মিড অফ, স্লিপসহ অন্যান্য ফিল্ডিং পজিশন এমনকি কখনও কখনও উইকেটরক্ষককেও দেখা যায় সহজ ক্যাচ ফেলে দিতে। তাতে অনেক সময় নিশ্চিত জয়ের ম্যাচটিও হাত ফসকে বেরিয়ে যায়। এই সংকট উত্তোরণেই বোধ হয় টাইগারদের জন্য ওয়ান হ্যান্ডেড ক্যাচিংবা এক হাতে ক্যাচিং অনুশীলন বাধ্যতামূলক করে দেয়া হয়েছে। যদিও বিষয়টি নতুন নয়। বিগত দিনগুলোতে প্রতিটি সিরিজ কিংবা টুর্নামেন্টের প্রস্তুতি ক্যাম্পেও এমন অনুশীলনে তারা ঘাম ঝড়িয়েছেন। সেই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলো টাইগারদের এশিয়া কাপের চলতি অনুশীলন ক্যাম্পেও। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের অনুশীলনে চোখে পড়লো মাশরাফি, তামিমদের একহাতে ক্যাচিং অনুশীলন করাচ্ছেন সহকারি কোচ সোহেল ইসলাম। মিরপুর শেরবাংলা স্টেডিয়ামের সেন্টার উইকেটের প্রায় কাছে দাঁড়িয়ে ব্যাটেবলে সংযোগ করে আকাশে বল ছুঁড়ছেন সোহেল ইসলাম। আর টাইগাররা তা দৌঁড়ে এসে এক হাতে তালুবন্দি করতে চেষ্টা করছেন। অনেকেই পেরেছেন, অনেকেই ফেলেছেন। যারা ফেলেছেন তারা দ্বিতীয়বার না হোক তৃতীয়বার কিংবা তারপরের প্রচেষ্টায় ঠিকই পেরেছেন। ওয়ান হ্যান্ডেড ক্যাচের কারণ একটাই। ম্যাচ চলাকালীন কঠিন ক্যাচটিও যেন টাইগাররা সহজেই লুফে নিতে পারেন। সহকারি কোচ সোহেল ইসলামের মতে, ‘একহাতে ক্যাচ ফিল্ডিংয়ের সময় তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। এতে করে দুহাতে ক্যাচ নেয়া সহজ হবে।আগামী ১৫২৮ সেপ্টেম্বর আরব আমিরাতে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপ ক্রিকেটকে সামনে রেখে ২৭ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অনুশীলন ক্যাম্প। ১১ দিনের এই ক্যাম্পের প্রথম ৫ দিন চলবে ফিটনেস ও ফিল্ডিং অনুশীলন। পাশাপাশি থাকবে ঐচ্ছিক ব্যাটিং অনুশীলন। ২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে ব্যাটিং ও বোলিং অনুশীলন।

x