ফাইনাল নিয়ে এখনই কথা বলতে চান না মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বুধবার , ১৫ মে, ২০১৯ at ৫:০৯ পূর্বাহ্ণ
34

‘ফাইনাল’ শব্দটি এখন অন্যরকম এক অনুরণন তোলে মাশরাফি বিন মুর্তজার মনে। এমনিতে যে কোনো আসরের ফাইনাল খেলা মানে যথেষ্টই বড় প্রাপ্তি। কিন্তু বারবার হৃদয় ভাঙার যন্ত্রণায় পুড়ে বাংলাদেশের জন্য ফাইনাল হয়ে আছে হাহাকারের প্রতিশব্দ। ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে তাই চূড়ান্ত কিছু বলতে চাইছেন না টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। কারণ একের পর এক টুর্নামেন্টের ফাইনালে গিয়ে খালি হাতে ফিরে আসা মাশরাফির কাছে তাই ফাইনাল মানে বেশ কঠিন একটি শব্দ। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হারিয়ে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ । তাও এক ম্যাচ বাকি রেখেই। ওয়ানডেতে এটি বাংলাদেশের পঞ্চম ফাইনাল। দুটি খেলেছে টাইগাররা টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। বাংলাদেশ হেরেছে সবকটি ফাইনাল। হারের ধরনও ছিল বেদনায় মাখা। তিনটি ফাইনালে শেষ বলে হেরেছে বাংলদেশ। দুটিতে হেরেছে শেষের আগের ওভারে। বারবার তাই হাতছানি দিয়েও মিলিয়ে গেছে শিরোপা। এখনও পর্যন্ত কোনো আন্তর্জাতিক ট্রফি জয় করতে পারেনি দল।
ছয় ফাইনাল হারের পাঁচটিতেই ছিলেন মাশরাফি। আর নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনটিতে। নাগালে পেয়েও ট্রফি হারিয়ে ফেলার হতাশা কতটা পোড়ায় তিনি তা খুব ভালো জানেন। আর সে কারণেই কিনা ফাইনালে উঠেও রোমাঞ্চ এখনই ছুঁয়ে যাচ্ছে না বাংলাদেশ অধিনায়ককে। আরেকটি ফাইনাল মানে যে ট্রফি জয়ের আরেকটি সুযোগ সেটা ভালই জানেন মাশরাফি। কিন্তু ফাইনালের প্রসঙ্গ উঠতেই যে হাসি দেখা গেল তার মুখে। তাতে আক্ষেপটাই ফুটে উঠল বেশি। বারবার স্বপ্নের মৃত্যুর পর এবার আরেকটি ফাইনালে উঠেও বাংলাদেশ অধিনায়ক ভীষণ সাবধানী। ট্রফির স্বপ্নে বিভোর হচ্ছে না এখন তার দল। তাইতো বললেন ফাইনাল নিয়ে আমার কোনো ফাইনাল কথা নেই। অনেক কথা হয়েছে আগে। অনেক অভিজ্ঞতা পেয়েছি। সেগুলো সুখকর ছিল না। এবারও যে কোনো কিছুই হতে পারে। আরেকবার সুযোগ এসেছে। কাজেই আমরা আবারও চেষ্টা করব ভাল কিছু করার। এখানে ভাল কিছু করা মানে ট্রফি জেতা। এর বাইরে আর কিছু নেই। তবে পাছে ভয়টা তাড়া করে টাইগারদের। আবার না জানি সে পরিণতি ভোগ করতে হয়। যা ভোগ করতে হয়েছে আগের ছয় ফাইনালে।
কিন্তু বাস্তবতার জমিনে দৃঢ় পায়ে চলতে থাকা মাশরাফি আর স্বপ্ন দেখতে রাজি নন। কিন্তু মনের মধ্যে যে ট্রফি জয়ের তাড়না রয়ে গেছে সেটাও বলতে ভুললেননা। তাইতো বললেন ট্রফি জিততে পারলে অবশ্যই ভালো লাগবে। আগে কখনও কোন ট্রফি জিতিনি আমরা। তবে শুধু সেটিই নয়, বিশ্বকাপের আগে এই টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে অনেক আত্মবিশ্বাস নিয়ে আমরা ইংল্যান্ড যেতে পারব। কাজেই সবদিক থেকে এবারের ত্রিদেশীয় সিরিজের ট্রফিটা আমাদের জন্য অন্যরকম বার্তা বহন করছে। কারণ এই ট্রফিটার সাথে অনেক কিছু নির্ভর করছে। কাজেই খুব সাবধানে পা ফেলতে চাইছেন টাইগার দলপতি মাশরাফি। ফাইনালের প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এই টুর্নামেন্টেই দুই ম্যাচে লড়াই করতেও দেয়নি বাংলাদেশ। ফাইনালেও বাংলাদেশই থাকবে ফেভারিট। তবে অতীত বলে, ফাইনালের মতো ম্যাচে পূর্বানুমান বা আগের হিসাব-নিকাশের মূল্য আছে সামান্যই। নিজেদের হতে হবে দিনটি। খেলতে হবে সেরাটা। যেমনটি লিগ পর্বের দুই ম্যাচে খেলেছে। সবাইকে একটি ইউনিট হয়ে খেলতে হবে। সতীর্থদের কাছে সেটাই এখন মাশরাফির চাওয়া। মনের মধ্যে শংকা, ভয়, হারের তিক্ত অভিজ্ঞতা, তীরে এসে তরী ডুবানো কিংবা শেষ বলে স্বপ্ন ভঙ্গ হওয়া কত কিছুই রয়েছে টাইগারদের ফাইনালে। যতই সাহসী কথা বলুকনা কেন মাশরাফি, সে সব একটু হলেও উঁকি মারবে। তবে সে সব ভয়কে জয় করে বাংলাদেশের অপেক্ষা এবার ফাইনালকে পক্ষে আনার।

x