প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে সনভাদ্রায় যেতে দিল না পুলিশ

শনিবার , ২০ জুলাই, ২০১৯ at ৮:০৪ পূর্বাহ্ণ
87

ভারতের উত্তর প্রদেশে জমির বিরোধে গুলিতে নিহত ১০ জনের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে বাধা দিয়েছে পুলিশ।
গত বুধবার রাজ্যের সনভাদ্রা জেলার উম্বাহ গ্রামে গুলির ওই ঘটনা ঘটে। হতাহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে শুক্রবার সকালে প্রিয়াঙ্কা সনভাদ্রা জেলায় যেতে চাইলে পথে মির্জাপুরে পুলিশ তার গাড়িবহর আটকে দেয়।
প্রতিবাদে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা তার কর্মীদের নিয়ে সড়কে বসে পড়েন। পরে একটি সরকারি গাড়িতে করে তাকে সেখান থেকে জোর করে সরিয়ে নেওয়া হয় বলে জানা যায়। খবর বিডিনিউজের।
প্রিয়াঙ্কা বলেন, আমি শুধু ওইসব ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলাম, যাদের প্রিয়জনকে নিষ্ঠুরভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। আমার ছেলের বয়সের একটি ছেলেকে গুলি করা হয়েছে এবং সে হাসপাতালে পড়ে আছে। বলুন, কোন আইনের বলে আমাকে আটকে দেওয়া হয়েছে। ভারতে জাতীয় নির্বাচনের সময় থেকে এটা উত্তর প্রদেশে প্রিয়ঙ্কার দ্বিতীয় সফর। তিনি ওই রাজ্যের পূর্বাঞ্চলের কংগ্রেস প্রধানের দায়িত্বে আছেন। জানা যায়, শুক্রবার সকালে প্রিয়াঙ্কা উড়োজাহাজে করে বারানসি পৌঁছান এবং সেখানে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সংঘর্ষে আহতদের দেখতে যান। তারপর তিনি বারানসি থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরে সনভাদ্রার পথে রওয়ানা হন। প্রিয়াঙ্কা রওয়ান হওয়া পর খবর বের হয়, স্থানীয় প্রশাসন সনভাদ্রা জেলায় জনসমাগমের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। সনভাদ্রার কাছে মির্জাপুরে প্রিয়াঙ্কার গাড়িবহর আটকে দেওয়ার পর তারা সড়কে অবস্থান নেয়। সেখান থেকে তিনি বলেন, আমি এখানে শান্তিপূর্ণভাবে বসে আছি, কেউ কী দয়াকরে আমাকে এখানে আটকে দেওয়ার নির্দেশ নামা দেখাবেন।

x