প্রায় সব শিরোপাই নিয়ে গেছে আনসার ভিডিপি

৩৬তম জাতীয় ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপে হতাশ করল চট্টগ্রাম

ক্রীড়া প্রতিবেদক

রবিবার , ২১ জুলাই, ২০১৯ at ৪:৪৮ পূর্বাহ্ণ
14

গত কয় বছর ধরে বেশ ভালই এগুচ্ছিল চট্টগ্রামের ব্যাডমিন্টন। জুনিয়র এবং সাব জুনিয়রে বেশ কয়েকবার চ্যাম্পিয়নও হয়েছে চট্টগ্রামের তরুণরা। কিন্তু পারলনা জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে এসে। দারুণ এক আয়োজন ছিল এবারের জাতীয় ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপের। কিন্তু বর্ণিল আয়োজনের মাঝে হতাশ করেছে চট্টগ্রামের শার্টলাররা। আর পাঁচটি ইভেন্টের চারটিতেই শিরোপা জিতেছে আনসার-ভিডিপি। কেবল মাত্র পুরুষ এককের চ্যাম্পিয়ন এবং রানার্স আপ ট্রফি জিতেছে সিলেট জেলা দল। বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের তত্ত্বাবধানে, চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত মেয়র জাতীয় ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপ সম্পন্ন হয়েছে গত শুক্রবার রাতে। যেখানে একচ্ছত্র আধিপত্য ছিল বাংলাদেশ আনসার-ভিডিপি দলের। স্বাগতিক চট্টগ্রাম কোন ইভেন্টেই ফাইনালে যেতে পারেনি। অথচ স্বাগতিকদের নিয়ে প্রত্যাশার পারদটা ছিল বেশি। শুক্রবার অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার সবচাইতে আকর্ষনীয় ইভেন্ট পুরুষ এককের ফাইনালটি ছিল অল সিলেট। ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল সিলেটের দুই শার্টলার সালমান এবং গৌরব সিং। আকর্ষনীয় সে পুরুষ এককে চ্যাম্পিয়ন সিলেট ডিএসএ এর সালমান এবং রানার্স আপ সিলেট ডিএসএ এর গৌরব সিং। পুরুষ দ্বৈতে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ আনসার ভিডিপির জামিল আহমেদ দুলাল ও রাহাদ কবির খালেদ জুটি। এই ইভেন্টে আনসার-ভিডিপির প্রতিপক্ষ ছিল বাংলাদেশ রেলওয়ে এর আল আমিন জুমার ও মোস্তাফিজুর রহমান লিপ্টন জুটি। আরেক আকর্ষণীয় ইভেন্ট মহিলা এককে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ আনসার ভিডিপির শাপলা আক্তার । ফাইনালে তার প্রতিপক্ষ ছিল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এলিনা সুলতানা। দু জনই দেশের সেরা নারী শার্টলার। মহিলা দ্বৈতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ আনসার ভিডিপির শাপলা আক্তার ও দুলালি ইসলাম জুটি । আর রানার্স আপ হয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এলিনা সুলতানা ও নাবিলা জামান জুটি। মিশ্র দ্বৈতের শিরোপাটিও জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ আনসার ভিডিপি। এই ইভেন্টে শাপলা আক্তারের সাথে জুটি বাঁধেন রাহাত কবির খালেদ । আর রানার্স আপ হয়েছে পাবনা জেলা দলের লাল চাঁদ ও উর্মি আক্তার জুটি। উল্লেখ্য বাংলাদেশ আনসার ভিডিপির শাপলা আক্তার ত্রিপল ক্রাউন অর্জন করেন।
খেলা শেষে সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সিজেকেএস জিমন্যাশিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় । এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সভাপতি আবদুল মালেক। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম. নাছির উদ্দীন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব দিদারুল আলম । অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চ্যাম্পিয়নশীপ অর্গানাইজিং কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিজেকেএস যুগ্ম-সম্পাদক আমিনুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: শামসুদ্দোহা, চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন, বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আলমগীর হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক কবির সিকদার, কোষাধ্যক্ষ নূর মোহাম্মদ, নির্বাহী সদস্য শাহজালাল মুকুল, তারিক মাহমুদ, জাহিদুল হক কচি, মনির হোসেন। এছাড়া সিজেকেএস কোষাধ্যক্ষ শাহাবুদ্দীন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, নির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব দিদারুল আলম চৌধুরী, জহির আহমদ চৌধুরী, এ.কে.এম. এহসানুল হায়দার চৌধুরী (বাবুল), আ.ন.ম. ওয়াহিদ দুলাল, মোহাম্মদ ইউসুফ, আছলাম মোরশেদ, ইঞ্জিনিয়ার জসীম উদ্দিন, রেখা আলম চৌধুরী, মনোরঞ্জন দে, বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।
সিজেকেএস ব্যাডমিন্টন কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ডেরিক র‌্যান্‌ডলফ, মাহমুদুর রহমান মাহবুব, যুগ্ম সম্পাদক নিখিল চন্দ্র ধর, মোরশেদ খান, সদস্য এনামুল হক এনাম, আখতারুজ্জামান, নিমশান জাহাঙ্গীর, মাইনুল ইসলাম আজাদ, এনামুল হক, মোঃ জসিম উদ্দিন, কাশেম বিন বাদল, তৌহিদ হোসেনরা এই চ্যাম্পিয়নশিপ সফল করতে সহযোগিতা করেছেন।

x