প্রফেশনাল বিবিএ উত্তীর্ণদের জন্য কাজের সুযোগ

প্রবীর বড়ুয়া

শনিবার , ২২ জুন, ২০১৯ at ১১:২০ পূর্বাহ্ণ
211

বিবিএ শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যাংক, বীমাসহ বিভিন্ন সরকারি/বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের হিসাব বিভাগ, নিরীক্ষা বিভাগ, ট্যাক্স, আর্থিক প্রশাসন, আর্থিক ব্যবস্থাপনা বিভাগে রয়েছে কাজের সুযোগ। এসব বিবেচনা করে আধুনিক যুগের চাহিদা ও আন্তর্জাতিক শিক্ষার মানের সাথে তাল মিলিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় চালু করেছে বিবিএ (পাশ ও অনার্স) প্রফেশনাল কোর্স। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিগ্রিগুলো হলো প্রফেশনাল বিবিএ, বিবিএ (অনার্স) ও বিবিএ (পাশ)। প্রফেশনাল বিবিএ পড়ানো হয় শুধু পাবলিক, প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে। প্রফেশনাল বিবিএ পড়ানো হয় ইংরেজি মাধ্যমে ও সেমিস্টার ভিত্তিতে। মোট ৪০টি বিষয়কে প্রতি সেমিস্টারে ৫টি করে মোট ৮ সেমিস্টারে পড়ানো হয়। কোর্সটিতে ইন্টার্নশিপ বাধ্যতামূলক যা থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা বাস্তব জ্ঞান অর্জন করতে পারে। অন্যদিকে বিবিএ (অনার্স) পড়ানো হয় বাংলা মাধ্যমে। চার বছরে মোট বিষয় হলো ৩০টি। প্রতি বছর ৬টি করে বিষয় পড়তে হয় এবং এখানে ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা নেই যে কারণে ছাত্র-ছাত্রীরা বাস্তব জ্ঞান অর্জন করতে পারে না। তাই চাকরির বাজার পর্যক্ষেণ করে দেখা যায় যে বিবিএ (অনার্স)-এর চেয়ে প্রফেশনাল বিবিএ-এর চাহিদা বেশি। প্রফেশনাল বিবিএতে মেজর বিষয়সমূহ হলো অ্যাকাউন্টিং, ম্যানেজমেন্ট, ফিন্যান্স এবং মার্কেটিং। এ প্রসঙ্গে নগরীর হালিশহরের বড়পোলে অবস্থিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত ইনস্টিটিউট অভ বিজনেস স্টাডিজ (আইবিএস)-এর পরিচালক শরীফুল ইসলাম লিখন বলেন, ‘চাকরির ক্ষেত্র প্রসারিত হওয়ায় আজকাল অনেক শিক্ষার্থী বিবিএ পড়তে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। তাই এইচএসসি উত্তীর্ণ যে সকল ছাত্রছাত্রী পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে ভর্তির সুযোগ পায় না এবং বিপুল অর্থ ব্যয় করে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সামর্থ্য যাদের নেই তাদের জন্য স্বল্প খরচে এই বিবিএ কোর্সটি অত্যন্ত সময়োপযোগী।’ তিনি জানান, সারা দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত ইনস্টিটিউটগুলোর মধ্যে আইবিএস প্রথম শ্রেণির একটি প্রতিষ্ঠান যার কলেজ কোড ৪৩৫৮। এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ফলাফল, পড়াশোনার মান, ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিভঙ্গী, শিক্ষকবৃন্দের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফসল হিসেবে ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে সেমিস্টারের ৩য়, ৮ম স্থান অধিকার সহ গড়ে ৩/৪টি স্থান সম্মিলিত মেধা তালিকায় স্থান করে নিচ্ছে। এ পর্যন্ত অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী তাদের বিবিএ ডিগ্রি সাফল্যের সাথে সম্পন্ন করেছেন এই প্রতিষ্ঠান থেকে।
শরীফুল ইসলাম লিখন আরো জানান, এখানে ক্লাশ পরিচালিত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিজ্ঞ শিক্ষকদের দ্বারা। আছে সমৃদ্ধ লাইব্রেরি ও মাল্টিমিডিয়া প্রযুক্তি। পাঠ মূল্যায়নের জন্য রয়েছে পাক্ষিক, মাসিক এবং ইন্টারনাল পরীক্ষা। আইবিএস-এর প্রাক্তন কয়েকজন শিক্ষার্থীর মতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এই আন্তর্জাতিক প্রফেশনাল কোর্সে হাতে কলমে তারা যা শিখেছেন তা পেশাগত জীবনে তাদের বিশেষভাবে সাহায্য করেছে।
ভর্তির যোগ্যতা ও খরচ: এসএসসি ও এইচএসসি এবং সমমান পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ২.৫ পেয়ে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ৪ বছর মেয়াদী এই কোর্সে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন।
আবেদন করার নিয়ম: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির পৃষ্ঠায় (www.nu.edu.bd/admisssions) গেলে চারটি অপশন পাওয়া যাবে। ১) অনার্স, ২) প্রফেশনাল, ৩) ডিগ্রী পাশ, ৪) মাস্টার্স। প্রফেশনাল বিবিএ-তে আবেদন করতে হবে। প্রফেশনাল-এ গিয়ে Apply now তে ক্লিক করে ফরম পূরণ করে প্রিন্ট কপি আইবিএস কলেজে জমা দিতে হবে। এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আগ্রহীরা যোগাযোগ করতে পারেন ০৩১-২৫১৬৬০০, ০১৭১১৪২৪২৯৫ নম্বরে।

x