প্রক্রিয়াজাত কৃষি পণ্য রপ্তানিতে তিন পদকই পেল প্রাণ

সোমবার , ১৬ জুলাই, ২০১৮ at ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ
164

২০১৪১৫ অর্থবছরের জন্য প্রক্রিয়াজাত কৃষি পণ্য রপ্তানিতে স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জতিনটি পদকই পেল দেশের শীর্ষস্থানীয় খাদ্যপণ্য প্রক্রিয়াজাত ও রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান প্রাণ। সর্বোচ্চ রপ্তানিকারক হিসেবে টানা ১৪ বার সেরা রপ্তানিকারকের পদক পেল দেশের অন্যতম এ শিল্পগোষ্ঠী। রপ্তানিক্ষেত্রে অনবদ্য ভূমিকার জন্য প্রাণ গ্রুপের তিন প্রতিষ্ঠানকে এ পদক দিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। ২০১৪১৫ অর্থবছরে এগ্রো প্রসেসিং খাতে প্রাণ ডেইরি লিমিটেড স্বর্ণপদক, প্রাণ এগ্রো লিমিটেড রৌপ্য এবং ময়মনসিংহ এগ্রো লিমিটেড ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এর কাছ থেকে রপ্তানি পদক গ্রহণ করেন প্রাণ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইলিয়াছ মৃধা, প্রাণআরএফএল গ্রুপের পরিচালক (কর্পোরেট ফাইন্যান্স) উজমা চৌধুরী এবং প্রাণ এক্সপোর্ট লিমিটেডের চীফ অপারেটিং অফিসার মিজানুর রহমান।

প্রাণ গ্রুপ ১৯৯৭ সালে ফ্রান্সে অ্যাগ্রো প্রসেসিং পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক বাণিজ্যে পা রাখে। বর্তমানে বিশ্বের ১৪১টি দেশে প্রাণ এর পণ্য পাওয়া যাচ্ছে। প্রাণআরএফএল গ্রুপের বিপণন পরিচালক কামরুজ্জামান কামাল বলেন, আমাদের ব্র্যান্ডের ওপর বিশ্ব ব্যাপী ভোক্তাদের আস্থা রাখার জন্য এসব পদক পাওয়া সম্ভব হয়েছে। প্রাণ সবসময় ক্রেতাদের চাহিদানুয়ায়ী পণ্য তৈরি করে থাকে। সেরা রপ্তানিকারক পদক প্রাপ্তিতে আমরা গর্বিত। তিনি আরও বলেন, প্রাণ পণ্যের সবচেয়ে বড় বাজার ভারত ও মধ্যপ্রাচ্য। আফ্রিকা, দক্ষিণ আমেরিকাসহ বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে বাজার সম্প্রসারণে প্রাণ গ্রুপ প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে।

রপ্তানি পদক পেল আরএফএল

২০১৪১৫ অর্থবছরে প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানির জন্য রৌপ্য পদক পেয়েছে আরএফএল গ্রুপের প্রতিষ্ঠান ডিউরেবল প্লাস্টিকস লিমিটেড। রপ্তানিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় ডিউরেবল প্লাস্টিকসকে এ পদক দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এর কাছ থেকে রপ্তানি পদক গ্রহণ করেন আরএফএল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আর এন পাল।

আর এন পাল জানান, প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য আমরা এই পদক পেয়েছি। ডিউরেবল প্লাস্টিক রপ্তানির ক্ষেত্রে নতুন বাজার সৃষ্টিতে সক্ষম হয়েছে। পাশাপাশি দেশের আর্থসামাজিক অবস্থার মানোন্নয়নে অনবদ্য ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। বর্তমানে বিশ্বের ৬৪ টি দেশে আরএফএল পণ্য পাওয়া যাচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। খবর প্রেসবিজ্ঞপ্তির।

x