প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন এমপি মোস্তাফিজ

শুক্রবার , ২৩ মার্চ, ২০১৮ at ৩:১৪ পূর্বাহ্ণ
205

গতকাল ২২ মার্চ দৈনিক আজাদীর ১ম পৃষ্ঠায় প্রকাশিত “মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ৩ লাখ!” শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। তাঁর প্রতিবাদলিপিটি নিম্নে হুবহু প্রকাশ করা হলো :
“মহান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে ও দুই লাখ মা বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে, জাতির জনক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা এই স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র পেয়েছি। মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে অপপ্রচারের সুযোগ নেই। কিন্তু আপনার স্বনামধন্য পত্রিকায় কোন রকম তথ্য প্রমাণ ছাড়া আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য, আমার উদ্ধৃতি দিয়ে “মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ৩ লাখ!” খবরটি ছেপেছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। কোন তথ্যের উপর ভিত্তি করে উক্ত সংবাদটি ছাপানো হয়েছে আমি তা জ্ঞাত নই। ২১শে মার্চ পটিয়ায় অনুষ্ঠিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় আমার নির্বাচনী এলাকা বাঁশখালী থেকে প্রায় ১০৫ টির অধিক বাসে করে প্রায় ৬ হাজারেরও অধিক মানুষ মিছিল সহকারে যোগদান করেছে। কিন্তু এ সংবাদটি আপনার পত্রিকার কোথাও ছাপা হয়নি। আমার এতো বিপুল পরিমাণ জনসমর্থন দেখে, “যারা জীবনে কোন দিন নৌকায় ভোট দেয় নাই, কিন্তু মুখে নৌকা নৌকা বলে অন্তরে জামাতি মতাদর্শ নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে ধ্বংস ও নিধনের এজেন্ডা বাস্তবায়নে ব্যস্ত, তারাই উক্ত নিউজটি আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচারের হাতিয়ার হিসেবে আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের সুনাম ক্ষুণ্ন করার জন্য ছাপিয়েছে। আর আমি আমার বক্তব্যে বলেছি, আমার নির্বাচনী এলাকা বাঁশখালীতে প্রায় ৭০০ কোটি টাকার উন্নয়ন ছাড়াও আমার বাঁশখালীতে ক্যান্সার আক্রান্ত, সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ জেলের পরিবার, আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ঘর বাড়ি পুনঃনির্মাণ ও বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত মানুষের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী “প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল” হতে প্রায় ৬২ (বাষট্টি) লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য দিয়েছেন। কিন্তু আপনার পত্রিকায় ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে খবরটি ১২ (বার) লক্ষ ছেপেছে এবং এখানে টিআর কাবিখার কোটি কোটি টাকার বরাদ্দের কথা বলেছে। টিআর কাবিখা দিয়ে রাস্তাঘাট ও অন্যান্য অবকাঠামো উন্নয়ন করা হয়। কিন্তু কোনভাবেই উক্ত টিআর কাবিখা দিয়ে কারো ব্যক্তিগত আর্থিক অসচ্ছলতার বা চিকিৎসার দায়ভার বহন করা সম্ভব নয়।” তাই আমি আপনার নিকট উক্ত প্রকাশিত সংবাদের যথাযথ তথ্য প্রমাণ সাপেক্ষে সত্য তথ্য উপস্থাপন করে সাধারণ জনগণের বিভ্রান্তি দূর করার জন্য বিনীতভাবে আহ্বান জানাচ্ছি। আর প্রকাশিত সংবাদের সাংবাদিকের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণেরও আহ্বান জানাচ্ছি। আপনি আমার সালাম জানবেন।”

x