প্রকল্পে গতি আনতে অর্থ ছাড়ের নিয়ম শিথিল

শুক্রবার , ২৯ জুন, ২০১৮ at ৬:২৯ পূর্বাহ্ণ
142

উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর কাজ দ্রুত শুরু করতে পরিচালকদের অনুমোদন ছাড়াই প্রথম দুই কিস্তির অর্থ পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে সরকার। সমপ্রতি অর্থ মন্ত্রণালয় এক পরিপত্রে এই সুযোগ দিয়ে বলা হয়েছে, বর্তমানে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পের সরকারি তহবিলের অর্থ ছাড়ের অনুমোদন নিতে ২ থেকে ৩ মাস সময় লাগে। তাই ওই সময়ক্ষেপণ ও প্রকল্পের গতি বাড়াতে নতুন এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। ২০১৮১৯ অর্থবছরের শুরু অর্থাৎ আগামী জুলাই মাস থেকেই প্রকল্পের পরিচালকরা সরকারি তহবিলের বরাদ্দকৃত অর্থের প্রথম দুই কিস্তি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই পেয়ে যাবেন। সরকারের চলমান আর্থিক সংস্কার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের অর্থ অবমুক্তি ও ব্যবহার নির্দেশিকায় সংশোধন এনে এই সুযোগ দেওয়া হয়েছে। খবর বিৃি পদ্ধতিতে উন্নয়ন প্রকল্পের প্রথম ও দ্বিতীয় কিস্তির অর্থ ব্যবহারের ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়/ বিভাগ থেকে বিভাজন আদেশ জারি এবং অর্থ ছাড় করার প্রয়োজন হবে না। প্রকল্প পরিচালকগণ বাজেট বরাদ্দের আলোকে জুলাই মাসের প্রথম দিন হতে সরাসরি অর্থ ব্যবহারে সক্ষম হবে। উন্নয়ন প্রকল্পগুলোতে প্রতি বছর যে অর্থ বরাদ্দ হয়, তা প্রতি তিন মাস পর পর এক কিস্তি করে চার কিস্তিতে ছাড় করা হয়। অর্থ ছাড়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কিংবা বিভাগের অনুমোদন নিতে হয়, যা আর লাগবে না। সংশোধিত পদ্ধতিতে প্রকল্প পরিচালকগণ অর্থবছরের শুরুতেই পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যক্রম গ্রহণ করতে পারবে। ফলে এডিপির আওতায় গৃহীত প্রকল্পসমূহের বাস্তবায়ন আরও গতিশীল হবে, বলা হয় পরিপত্রে। ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে বর্তমানে কিস্তিভিত্তিক অর্থ ছাড়ের যে বিধান রয়েছে, তাতেও সংশোধন এনে কিস্তির পরিবর্তে এককালীন অর্থ ছাড়ে বিধান করা হয়েছে।

x