প্যারি কমিউন : বিশ্বের প্রথম সর্বহারা শ্রেণির রাষ্ট্রশক্তি

বুধবার , ৮ আগস্ট, ২০১৮ at ৭:০৮ পূর্বাহ্ণ
19

বিশ্ব ইতিহাসে সর্বপ্রথম সর্বহারা শ্রেণীর রাষ্ট্রশক্তির নাম প্যারি কমিউন। মাত্র বাহাত্তর দিন স্থায়ী হলেও এই রাষ্ট্রশক্তিকে ফরাসি বিপ্লবের শ্রেষ্ঠ অবদান বলে ধরে নেওয়া হয়। ফ্রান্সের প্যারিতে শ্রমজীবী মানুষের বিপ্লবের মধ্য দিয়ে ১৭৯২ সালের ৯ই আগস্ট প্রতিষ্ঠিত হয় প্যারি কমিউন।

ফ্রান্সে বুর্জোয়া শ্রেণীর অব্যাহত শোষণ ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে ধীরে ধীরে সংগঠিত হচ্ছিল শ্রমিক শ্রেণী। এরই ধারাবাহিকতায় এক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে তারা রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে নেয়। সর্বহারা শ্রেণীর নেতৃত্বে নির্বাচনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয় প্যারি কমিউন। কমিউন ছিল দারিদ্র্য ও শোষণের বিরুদ্ধে মুক্তির প্রতীক। কমিউনের কার্যতালিকা ছিল সুদীর্ঘ। দরিদ্র জনগণের দুর্দশার প্রতিকারের পাশাপাশি রাষ্ট্রের মৌলিক পরিবর্তন সাধন ছিল কমিউনের লক্ষ্য। কিন্তু প্যারির সর্বহারা শ্রেণীর সাংগঠনিক শক্তি তেমন সুদৃঢ় ছিল না। প্রতিবিপ্লবীদের প্রতি কমিউন নেতাদের দৃষ্টিভঙ্গিও ছিল কোমল। ফলে অল্প সময়ের মধ্যেই প্রতিবিপ্লবীরা পুনরায় সংঘবদ্ধ হয় এবং রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের জন্যে নৃশংস বিপ্লবে অংশ নেয়।

কমিউনকে বাঁচাতে এই বিপ্লবে প্রায় বিশ হাজার মানুষ প্রাণ দিয়েছিল। কিন্তু প্রতিবিপ্লবীদের নৃশংসতার কাছে কমিউনের পতন ঘটে। প্যারি কমিউন মাত্র বাহাত্তর দিন ক্ষমতায় ছিল। কিন্তু এই অল্প সময়েই শ্রমিকদের ওপর জরিমানা প্রথা বিলোপ, কারখানায় রাতে কাজ নিষিদ্ধকরণ, বাড়িভাড়া মওকুফ, বন্ধকী দোকানের জিনিসপত্রের নিলাম রদসহ বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছিল।

x