মজুরি কাঠামোর অসঙ্গতি দূর করার আহ্বান

পোশাক খাত

শুক্রবার , ১১ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৪:৫১ পূর্বাহ্ণ
22

পোশাক খাতে মজুরি কাঠামোর অসঙ্গতি নিয়ে সৃষ্ট জটিলতায় শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ (স্কপ) চট্টগ্রামের নেতৃবৃন্দ উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান বাজারদরের সাথে সঙ্গতি রেখে পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ১৬ হাজার টাকা করার দাবি জানানো হলেও মালিক পক্ষের প্ররোচনায় রাষ্ট্র তা ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করে। কিন্তু গত পাঁচ বছরে শ্রমিকের মূল মজুরি ৫ শতাংশ হারে বৃদ্ধির বিষয়টি আমলে নেওয়া হয়নি। ফলে ৩ নং গ্রেডে মূল মজুরি ৫ বছরে বৃদ্ধি পেয়ে ৫,২০৪ টাকা হওয়ার কথা থাকলেও নতুন মজুরি কাঠামোতে তা ৫,১৬০ টাকা ধার্য করা হয়েছে। অর্থাৎ ধার্যকৃত মূল মজুরি ৪৪ টাকা কম হয়েছে। ৫ এবং ৬ নং গ্রেডে বিগত মজুরির তুলনায় মাত্র ৭৯ এবং ১৭৯ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এভাবে নানা অসঙ্গতিতে ভরপুর বর্তমান মজুরি কাঠামো। এছাড়া নতুন শ্রমিকের মোট মজুরি সর্বনিম্ন গ্রেডে ২ হাজার ৭০০ টাকা বৃদ্ধি পেলেও দক্ষ বা পুরনোদের তার অর্ধেকও বাড়েনি। আবার এ অসঙ্গতিপূর্ণ মজুরিও অনেক গার্মেন্টস মালিক দিতে নানা ছলচাতুরির আশ্রয় নিচ্ছেন। ফলে শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে।
নেতৃবৃন্দ সুষ্ঠু শিল্প পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে পোশাক খাতে মজুরি কাঠামোর অসঙ্গতি দ্রুত দূর করে ইনক্রিমেন্ট বিবেচনায় নিয়ে শ্রমিকদের গ্রেড অনুযায়ী বর্তমান মূল মজুরির সাথে ইনক্রিমেন্ট যুক্ত করে প্রত্যেক শ্রমিকের মজুরি নির্ধারণের দাবি জানান।
বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের (স্কপ) সমন্বয়ক তপন দত্ত, জাতীয় শ্রমিক লীগের মু. শফর আলী, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের এ এম নাজিম উদ্দিন, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের দিদারুল আলম, বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের মো. জাহেদ, বাংলাদেশ ফ্রি ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেসের আনোয়ারুল হক, বাংলাদেশ লেবার ফেডারেশনের নূরুল আবসার, বাংলাদেশ মুক্ত শ্রমিক ফেডারেশনের আলতাফ হোসেন, জাতীয় শ্রমিক জোটের মমিনুল ইসলাম এবং জাতীয় শ্রমিক জোটের বোধিপাল বড়ুয়া। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

- Advertistment -