পারস্য উপসাগরে যাচ্ছে যুক্তরাজ্যের তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ

ইরানের সঙ্গে উত্তেজনা

বৃহস্পতিবার , ১৮ জুলাই, ২০১৯ at ৫:১২ পূর্বাহ্ণ
43

পারস্য উপসাগরে তৃতীয় যুদ্ধজাহাজ পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। জিব্রাল্টার প্রণালিতে ব্রিটিশ নৌবাহিনী একটি ইরানি তেলবাহী ট্যাঙ্কার আটক করার পর তেহরানের সঙ্গে লন্ডনের কূটনৈতিক সম্পর্কে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি সৃষ্টির সময়ে এমন ঘোষণা দিল যুক্তরাজ্য।
স্কাই নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার জানিয়েছে, আগামী সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি নাগাদ পারস্য উপসাগরে ‘এইচএমএস কেন্ট’ যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করা হবে। কৌশলগত ওই অঞ্চলে নিরাপত্তা রক্ষার্থেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে ব্রিটিশ মন্ত্রণালয়ের দাবি। তবে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এবং এর সঙ্গে সামপ্রতিক উত্তেজনা বৃদ্ধির কোনো সম্পর্ক নেই।
ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে, পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে এ মুহূর্তে ‘এইচএমএস মন্ট্রোস’ নামে তাদের যে যুদ্ধজাহাজটি রয়েছে, সেটিকে মেরামতের জন্য যুক্তরাজ্যে ফিরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এর পরিবর্তে ‘এইচএমএস ডানকান’ নামে একটি যুদ্ধজাহাজ মধ্যপ্রাচ্যে পাঠানো হচ্ছে। আগামী সপ্তাহে ডানকান পারস্য উপসাগরে ঢুকবে বলে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। চলতি মাসের গোড়ার দিকে জিব্রাল্টার প্রণালি থেকে যুক্তরাজ্য একটি ইরানি তেল ট্যাঙ্কার আটক করার পর দুদেশের সম্পর্কে উত্তেজনা বাড়ে। একই সময়ে মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করে যুক্তরাজ্য। এরই মধ্যে স্পেন দাবি করে, যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধে সাড়া দিয়েই ইরানের ‘গ্রেস-১’ নামে তেলবাহী জাহাজটি আটক করেছে যুক্তরাজ্য। যদিও লন্ডন দাবি করছে, তেলের ট্যাঙ্কারটি সিরিয়ায় যাচ্ছিল। তাই সিরিয়ায় তেল রপ্তানির ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়নের যে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে, তা লঙ্ঘনের কারণেই ট্যাঙ্কারটি আটক করা হয়েছে। কিন্তু ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ ব্রিটেনের এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে জানান, সিরিয়াকে নয়, ইরানকে কোণঠাসা করতেই ‘গ্রেস-১’ ট্যাঙ্কারটি আটক করা হয়েছে। জাভেদ জারিফ আরো দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের তেল রপ্তানি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনার যে অপচেষ্টা করছে, তার জের ধরে ওয়াশিংটনের অনুরোধে লন্ডন ট্যাঙ্কারটি আটক করেছে। জারিফ আরো জানান, যুক্তরাজ্যের এ আচরণে প্রমাণ হয়, দেশটি পরমাণু সমঝোতা রক্ষার লক্ষ্যে চেষ্টা করার যে দাবি করছে, তা সত্য নয়।

x