পরিবহন আইনে যাত্রী অধিকার উপেক্ষিত, ক্যাবের সংশয়

শুক্রবার , ১০ আগস্ট, ২০১৮ at ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ
11

প্রস্তাবিত সড়ক পরিবহন আইনটি প্রণয়নের চেয়ে বাস্তবায়নই মুখ্য, সঙ্গে আইনে নিরাপত্তা, যাত্রী অধিকার ও প্রতিনিধিত্বের বিষয়টি উপেক্ষিত থাকায় এর সুফল নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম।

ক্যাব নেতৃবৃন্দের বক্তব্য, শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সংস্কার করে নতুনভাবে মন্ত্রিসভায় যে পরিবহন আইন অনুমোদন পেয়েছে তাতে সাধারণ জনগণ তাদের কাঙ্ক্ষিত সুফল পাবে না। কেননা গণপরিবহন সেক্টরের সঙ্গে জড়িত সকল পক্ষের সমঅংশগ্রহণ নিশ্চিত না হলে আগের মতোই আইন প্রয়োগকারীরা অক্ষম ও অসহায় হয়ে পড়বেন। পাশাপাশি নৈরাজ্য বন্ধ করা কঠিন হয়ে উঠবে।

তাদের দাবি, আইন প্রণয়নের পাশাপাশি বাস্তবায়নে সরকারি দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠানগুলোর সক্ষমতা বৃদ্ধি, গণপরিবহন সেক্টরে জড়িত মালিকশ্রমিক ও যাত্রীদের (ভোক্তা) নীতি নিধারণে সমঅংশগ্রহণ নিশ্চিত করা এবং সরকারি রেগুলেটরি প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রমকে নাগরিক পরিবীক্ষণের আওতায় আনা, জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে হবে।

গতকাল ক্যাব কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এসএম নাজের হোসাইন ও ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী স্বাক্ষরিত পাঠানো বিবৃতিতে এসব দাবি জানানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, সড়ক পরিবহন আইনের কমিটিতে মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের ন্যূনতম একজন করে প্রতিনিধি রাখার প্রস্তাব করা হলেও সেখানে ভোক্তাদের (যাত্রী) কোনো প্রতিনিধি রাখা হয়নি। যার কারণে প্রস্তাবিত এ আইনে ভোক্তার স্বার্থ সংরক্ষিত হয়নি। শির্ক্ষাথীদের দাবির প্রতি সম্মান রেখে সরকারকে দ্রুত আইনটি হালনাগাদ করার উদ্যোগ নিতে আহ্বান জানিয়েছেন ক্যাব নেতারা। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x