‘পরাজিত শক্তির দোসররাই ২১ আগস্ট হামলার কুশীলব’

শনিবার , ২৪ আগস্ট, ২০১৯ at ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ
23

২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার বিচার ত্বরান্বিত করার দাবিতে ৭নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগ সহ অঙ্গ, সহযোগী সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে এক সভা ওয়ার্ড কার্যালয় সম্মূখে ৭নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মোবারক আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব মোঃ এয়াকুব, ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মুহাম্মদ জসিম উদ্দিনের পরিচালনায় পবিত্র কোরআন তেলওয়াত করেন মোঃ শাহজাহান আল কোরাইশী। বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগ নেতা হাজী মোঃ ইসকান্দর মিঞা, মৌলভী তাজুল ইসলাম, মির্জা আহমেদ, ইউনিট আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজী নাছের আলম, আবুল কালাম সর্দার, মনির আহম্মদ, আনোয়ারুল ইসলাম বাপ্পী, এম এ আজিজ, লায়ন আলমগীর আলম, বিদ্যুৎ শ্রমিক লীগের নেতা মামুন হাওলাদার, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা সৈয়দ শামছুল ইসলাম, ইলিয়াছ আলী বাহাদুর, শাহেদ আলী রানা, ইসমাইল ফরিদ, ফরিদুল আলম, এস এম নাছির উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন, নাছির উদ্দিন খান, নিজাম উদ্দিন খোকন, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা মুহাম্মদ সামছুল হক চৌধুরী, মোস্তাফিজুর রহমান কাউসার, ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাতেমা রহমান ময়না, কান্তা ইসলাম মিনু, ওয়ার্ড যুব মহিলা লীগের সভাপতি সোনিয়া আজাদ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আব্দুল বাতেন, যুবলীগ নেতা জাহেদ হোসেন চৌধুরী, হামিদ হাসান মাটন, এস এম অলিউল্লাহ, মহসিন, কামরুল ইসলাম, রায়হান উদ্দিন, এস এম সিরাজ উদ্দিন, শাহনেওয়াজ ফারহান লেলিন, ইঞ্জি: শিবলী সাদেক সোহেল, পারভেজ, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা আমির হোসেন সোহাগ, মিন্টু কুমার দে মিঠু, হারুনুর রশিদ, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক, মহিলা আওয়ামীলীগ, মহিলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ। শেষে ২১আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মুহাম্মদ শাহাদাত হোসেন।

৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ
৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের উদ্যোগে গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের স্মরণে গত ২১ আগস্ট স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে আলোচনা সভা, খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি এম. হাসান মুরাদের সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী হাসান মুন্না ও সালাহউদ্দিনের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি নূরুল আলম।
আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রশিদ আহম্মেদ চৌধুরী, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাজী আবু নাছের, শামসুল আলম, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য জাহিদুল আলম মিন্টু, হাজী ইউনুস কুতুবী, হাজী মোঃ আলী মঈনু, হাজী নুরুল হুদা, হাজী সালামত আলী, হাজী শের আলী সওদাগর, শাহেদ বশর, হাজী মহিউদ্দিন, খান জাহান আলী, আবু হানিফ, মোঃ কামাল, শাহনেওয়াজ, ইউসুফ পারভেজ, দিদার, ইব্রাহিম, আনোয়ার কামাল, নগর যুবলীগের সদস্য এস.এম. ফারুক, ইউনিট সভাপতি আব্দুল শুক্কুর, মোঃ ফারুক, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সোলায়মান, আকরাম আলী, আব্দুল মোমিন সম্রাট, জেবল হোসেন, ফিরুজ, এনাম, এনায়েত হোসেন, নঈম, হুমায়ুন, বেলাল, মঞ্জু, শ্রমিক নেতা জয়নাল আবেদীন, আবু সাইদ, আব্দুল নূর, খোরশেদ আলম রুবেল, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা মোঃ রানা, সাদ্দাম, রানা, রাসেল, মুরাদ, মাসুদ প্রমুখ।
বক্তারা বলেন ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের নৃশংস হত্যাযজ্ঞের পূর্ণাঙ্গ রুপ দিতে খালেদা-নিজামীর সরকারের সরাসরি মদদে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করা হয়।
১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টের হামলা একই সূত্রে গাথা। আলোচনা সভার পূর্বে খতমে কুরআন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
মহানগর মহিলা শ্রমিক লীগ
একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে গত ২২ আগস্ট চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা শ্রমিক লীগের সভাপতি নাসরিন আকতার নাহিদার নেতৃত্বে এক র‌্যালি নগরীর ডিসি হিল চত্বর হতে শুরু করে কোতোয়ালী মোড়ে এসে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে তারাই ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের দলীয় শান্তিপূর্ণ মিটিংয়ে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা চালিয়েছিল জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশে। এই রকম নারকীয় ঘটনা পৃথিবীর আর কোথাও ঘটেনি। বক্তারা অবিলম্বে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচারের রায় কার্যকর করার দাবি জানান। বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি জাহাছিয়া নূর রোজি, নাজমিন আকতার রুবি, সাজেদা বেগম, সেলিনা আক্তার, চামেলী, শেফালী, নাজমা বেগম, রহিমা বেগম, মনোয়ারা বেগম, ইছমত আরা, স্মৃতি বেগম, শাহিন আক্তার মুন্নি, মনি প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x