পটিয়ায় মহাসড়ক অবরোধ

গাড়ির ধাক্কায় সহোদর দুই শিক্ষার্থী আহত হওয়ার জের

পটিয়া প্রতিনিধি

বুধবার , ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ at ৬:৩১ পূর্বাহ্ণ
202

পটিয়া পৌরসদরের থানার সামনে রাস্তা পারাপারের সময় তেলবাহী গাড়ির ধাক্কায় দুই সহোদর স্কুল ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়া থানার সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা প্রায় আধা ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় তেলবাহী গাড়িটি ভাঙচুর করা হয়। দুর্ঘটনায় আহতরা হলেন, উপজেলার আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র আবু আজাদ রিয়াদ (১৪) ও তার ভাই একই বিদ্যালয়ের আবু হানিফা রিজভী (১১)। তারা উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়নের ওমর ফারুকের ছেলে। তাদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙের দায়িত্বরত চিকিৎসক দেবারতী চৌধুরী জানান, দুর্ঘটনায় রিয়াদের এক পা ভেঙ্গে গেছে ও তার ভাই রিজভীর পায়ের পাতা থেতলে গেছে। এদিকে এ ঘটনার জের ধরে পটিয়া আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও সহপাঠীরা রাস্তায় নেমে এসে সড়ক দুর্ঘটনার প্রতিবাদে প্রায় আধা ঘণ্টা মহাসড়কের পটিয়া থানার সামনে অবরোধ করে রাখে। এ সময় শিক্ষার্থীরা তেলবাহী গাড়িটি ভাংচুর করলেও চালক পালিয়ে যায়। পরে স্কুলের শিক্ষক ও পটিয়া থানার একদল পুলিশ তাদের শান্ত করে। এতে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, স্কুল ছুটির পর ছাত্ররা বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় দ্রুতগতিতে আসা একটি তেলবাহী ভাউচার ট্রাক রিয়াদ ও রিজভীকে ধাক্কা দিলে তারা গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহত দুই ছাত্রকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করে।
পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন বলেন, দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা পদ্মা অয়েল কোম্পানির তেলবাহী গাড়িটি ভাংচুর করলেও চালক পালিয়ে যায়। চালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।

x