নির্বাচনী অনিয়ম তদন্তে কাজ করবেন বিচারকরাও

চট্টগ্রামের ১৬ আসনের দায়িত্বে ১০ জন

সোহেল মারমা

মঙ্গলবার , ২৭ নভেম্বর, ২০১৮ at ৬:৫৯ পূর্বাহ্ণ
80

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করবেন বিচারকরাও। ‘নির্বাচনী তদন্ত কমিটি’ নামে ইতোমধ্যে চট্টগ্রামে ১৬টি আসনে ১০ জন বিচারককে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনের আগে বিভিন্ন অনিয়ম প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে এসব বিচারকগণ কাজ করবেন।
গত ২৫ নভেম্বর এক প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন চট্টগ্রামসহ সারাদেশের আসনগুলোতে ‘নির্বাচনী তদন্ত কমিটি’ গঠন করে। ওই প্রজ্ঞাপনে স্ব-স্ব জেলা ও মহানগর আদালতের বিচারকদের এ কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন বলছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন পূর্ব অনিয়ম প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে বিচারবিভাগীয় কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে নির্বাচনী তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে সনাক-টিআইবি (ট্রান্সপেরেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ) চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি অ্যাডভোকেট আখতার কবির চৌধুরী আজাদীকে বলেন, নির্বাচনে বিচারকদের সম্পৃক্ততা অতীতেও হয়েছে। এটা একটা ভালো দিক। যাদের ওপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তারা যদি স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারেন তাহলে তা সবার জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে।
তিনি আরও জানান, সাধারণত ম্যাজিস্ট্রেটরা মাঠে নিয়োজিত থাকেন, সেখানে কেউ যদি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে তাহলে প্রয়োজনীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়ে থাকেন। নির্বাচনী তদন্ত কমিটির ক্ষেত্রে কাজটি আলাদা। নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের কোনো অনিয়ম পেলে বা বড় ধরনের কোনো অভিযোগ পেলে তদন্ত কমিটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।
এ ব্যাপারে জেলা রিটানিং অফিসার ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন আজাদীকে বলেন, নির্বাচনে বিভিন্ন অনিয়ম প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
নির্বাচন কমিশনের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, চট্টগ্রাম-১, ২ ও ৩ (মীরসরাই, ফটিকছড়ি ও সন্দীপ) আসনে দায়িত্বে থাকবেন চট্টগ্রামে যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ হারুন উর রশিদ ও সহকারী জজ বেগম ফারহা নূর রহমান।
চট্টগ্রাম ৪, ৫ ও ৬ (সীতাকুণ্ড এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৯ ও ১০ নং ওয়ার্ড, হাটহাজারী এবং কর্পোরেশনের ১ ও ২ নং ওয়ার্ড ও রাউজান) আসনের দায়িত্বে থাকবেন চট্টগ্রামের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ রহমত আলী এবং সহকারী জজ বেগম ফাতেমা বেগম মুক্তা।
চট্টগ্রাম ৭ (রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর-খরনদ্বীপ ইউনিয়ন), চট্টগ্রাম ৮ (শ্রীপুর-খরনদ্বীপ ইউনিয়ন ব্যতীত বোয়ালখালী উপজেলা ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৩, ৪, ৫, ৬ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ড), চট্টগ্রাম-৯ (সিটি কর্পোরেশনের ১৫, ১৬, ১৭, ১৮, ১৯, ২০, ২১, ২২, ২৩, ৩১, ৩৩, ৩৪ ও ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড) আসনে চট্টগ্রামের যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ বেগম বিলকিস আক্তার এবং সহকারী জজ বেগম ইশরাত জাহান পুনম।
চট্টগ্রাম-১০, চট্টগ্রাম-১১, চট্টগ্রাম-১২ ও চট্টগ্রাম-১৩ আসনে দায়িত্বে থাকবেন চট্টগ্রামের যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ মো. জহির উদ্দিন এবং সহকারী জজ বেগম আশরাফুন্নাহার রিটা।
সবশেষে চট্টগ্রাম-১৪, চট্টগ্রাম-১৫ এবং চট্টগ্রাম-১৬ আসনে দায়িত্বে থাকবেন চট্টগ্রামের যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ বেগম আফরোজা জেসমিন কলি এবং সহকারী জজ বেগম তাহরীন আক্তার নওরীন।
চট্টগ্রামের-১৬ আসনের বাইরে কঙবাজার-১ ও ২ আসনে দায়িত্বে থাকবেন কঙবাজারের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ ফখরুল আবেদীন ও সহকারী জজ আলাউল আকবর।
কঙবাজার-৩ ও ৪ আসনে চট্টগ্রামের অর্থ ঋণ আদালতের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ বেগম সুরাইয়া সাহাব ও সহকারী জজ আব্বাস উদ্দীন দায়িত্ব পালন করবেন।
এছাড়া পার্বত্য তিন জেলার মধ্যে খাগড়াছড়ি আসনে দায়িত্ব পালন করবেন জেলাটির যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ খোরশেদ আলম ও সহকারী জজ (রাউজান চৌকি) সুব্রত দাশ, রাঙামাটি আসনে যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সাইফুল এলাহী ও ফেনীর সহকারী জজ জিএম ফারহান ইসতিয়াক এবং বান্দরবান আসনে দায়িত্ব পালন করবেন জেলাটির যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ বেগম নিশাত সুলতানা ও সহকারী জজ বেগম ঝুমু সরকার।

x