নিরুপমা দেবী : নারীর জীবনদর্শন প্রতিষ্ঠায় নিবিষ্ট লেখক

সোমবার , ৭ জানুয়ারি, ২০১৯ at ২:৪৯ পূর্বাহ্ণ
24

নিরুপমা দেবী। তাঁর বিশেষ পরিচিতি ঔপন্যাসিক হিসেবে। তবে ছোট গল্প, কবিতা এবং গানও রচনা করেছিলেন প্রচুর। স্বদেশী যুগে তাঁর দেশাত্মবোধক গান ও কবিতা বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। আজ তাঁর ৬৮তম মৃত্যুবার্ষিকী।
নিরুপমা দেবীর জন্ম ১৮৮৩ সালের ৭ই মে মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে। তাঁর সাহিত্য সাধনার শুরু কিশোর বয়স থেকেই। ভাই বিভূতিভূষণ ভট্ট ছিলেন সাহিত্যপ্রেমী। সেই সুবাদে পারিবারিক বন্ধু বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের সংস্পর্শে আসার সুযোগ পান নিরুপমা। তাঁর সাহিত্য-রচনার হাতেখড়ি বিভূতিভূষণ ভট্ট ও শরৎচন্দ্রের ‘হাতেখড়ি’ পত্রিকায়। নিরুপমা দেবীর উল্লেখযোগ্য রচনাসমূহের মধ্যে ‘দিদি’, ‘অন্নপূর্ণার মন্দির’, ‘শ্যামলী’, ‘আলেয়া’, ‘বিধিলিপি’, ‘যুগান্তরের কথা’, ‘অনুকর্ষ’ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। তাঁর রচনার প্রধান বিষয় গ্রামীণ জীবন, বিশেষ করে নারী-জীবনের আনন্দ-বেদনা, পারিবারিক অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রভৃতি। কাহিনির বিষয়বস্তুতে শরৎচন্দ্রের প্রচ্ছন্ন প্রভাব থাকলেও গদ্যশৈলীতে নিরুপমার রচনা নিজস্ব বৈশিষ্ট্যে অনন্য। তাঁর বেশ কিছু উপন্যাস চলচ্চিত্রায়িত হয়েছে, অভিনীত হয়েছে মঞ্চে । ১৯৩৮ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নিরুপমা ‘ভুবনমোহিনী’ স্বর্ণপদক এবং ১৯৪৩ সালে ‘জগত্তারিণী’ স্বর্ণপদক লাভ করেন। শেষ জীবনে তিনি বৈষ্ণবধর্মে দীক্ষা নিয়ে বৃন্দাবন চলে যান। বৃন্দাবনে বসবাসকালে ১৯৫১ সালের ৭ই জানুয়ারি প্রয়াত হন নিরুপমা দেবী।

- Advertistment -