নিট মুনাফা কমেছে ব্যাংক খাতে

রবিবার , ৯ জুন, ২০১৯ at ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ
108

২০১৭ সালের তুলনায় ২০১৮ সালে বাংলাদেশের ব্যাংক খাতের নিট মুনাফা ৫৭ দশমিক ৫ শতাংশ কমেছে। আর এই বছরে আগের বছরের তুলনায় ব্যাংক খাতে মোট মন্দ ঋণ ১ শতাংশ বেড়েছে, যার পরিমাণ ১৯ হজার ৬১০ কোটি টাকা। দীর্ঘদিন আদায় করতে না পারা যেসব ঋণ ব্যাংকগুলো অবলোপন করেছে, সেগুলোই মন্দ ঋণ। এখন মোট মন্দ ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯৩ হাজার ৯১০ কোটি টাকা। সম্প্রতি প্রকাশিত ‘ফাইন্যান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি রিপোর্ট-২০১৮’-এ বাংলাদেশের আর্থিক খাতের এই চিত্র উঠে এসেছে। খবর বিডিনিউজের।
প্রতিবেদনে দেখা গেছে, ২০১৭ সালে ব্যাংক খাতের মোট মন্দ ঋণ ছিল ৯ দশমিক ৩ শতাংশ, আর ২০১৮ সালে তা ১ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১০ দশমিক ৩ শতাংশ। দেশে ব্যাংকিং খাতের মোট ঋণ ৯১ লাখ ১৫ হাজার কোটি টাকা, এর ১০ দশমিক ৩ শতাংশ বা ৯৩ হাজার ৯১০ কোটি টাকা হচ্ছে মোট মন্দ ঋণ।
মন্দ ঋণ বৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে ব্যাংক খাতে। প্রতিবেদনে দেখা যায়, ব্যাংকগুলো আমানত সংগ্রহ করেছে আগের বছরের তুলনায় ১০ দশমিক ৫ শতাংশ বেশি, কিন্তু ঋণ দিয়েছে আগের বছরের তুলনায় ১৪ দশমিক ১ শতাংশ বেশি। অর্থাৎ যে হারে টাকা পেয়েছে বিতরণ করেছে তার চেয়ে বেশি। এসব কারণে ব্যাংকগুলোর সম্পদ এবং মূলধন ব্যবহার করার দক্ষতা অনেক কমে গেছে। ২০১৭ সালে যেখানে ব্যাংকগুলো ১০০ টাকার সম্পদ ব্যবহার করে ৭০ পয়সা মুনাফা করতে পেরেছিল, সেখানে ২০১৮ সালে ১০০ টাকার সম্পদ ব্যবহার করে মাত্র ৩০ পয়সা মুনাফা করেছে। ব্যাংকের মূলধন ব্যবহারের দক্ষতাও আগের চেয়ে অনেক কমেছে বলে প্রতিবেদনে উঠে এসেছে।

x