নবীন দেশের প্রবীণ বাজেট

সোমবার , ১১ জুন, ২০১৮ at ৬:০১ পূর্বাহ্ণ
38

২০১৮১৯ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার পর পরই ট্রেড বডি সমূহ, সুশীল সমাজ এবং সর্বস্তরের জনগণ মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। এর মধ্যে একটি সংগঠন বলেছেনএটি নবীন দেশের প্রবীণ বাজেট। ডিজিটাল বাংলাদেশ যখন প্রধানমন্ত্রীর ২০২১ বা ২০৪১ মিশন ও ভিশনের দিকে যাচ্ছে। এ প্রেক্ষাপটে আমাদেরও তাই মনে হচ্ছে।

মূলত : ভোটের বাজেটই দিলেন আমাদের ওল্ড এন্ড গোল্ড মিনিস্টার আবুল মাল আবদুল মুহিত। তার পেশকৃত এটি ১২তম বাজেট। প্রয়াত অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের পর তিনিই শীর্ষ বাজেট প্রণেতা। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রাক বাজেট আলোচনাকালে চট্টগ্রাম এলে একটি গণতান্ত্রিক বাজেট দেবেন বলেছিলেন। কিন্তু আসন সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে সরকারের এ ধরনের ভোটের বাজেট দেয়া ছাড়া গত্যন্তর ছিল না। এ বাজেট গণমুখী বলা যাবে না। এক নজরে ২০১৮১৯ বাজেটের পরিসংখ্যান হচ্ছে ৩,৪৩,৩৩১ হাজার কোটি টাকা, ব্যয় ৪,৬৪,৫৭৩ হাজার কোটি টাকা, ঘাটতি থাকছে ১,২১,২৪২ হাজার কোটি টাকা।

ব্যবসায়ীরা সবাই করপোরেট কর হার আরেকটু বেশি ছাড় চেয়েছিলেন। কিন্তু সেক্ষেত্রে ব্যাংক, বীমা, আর্থিক খাত’এর কর্পোরেট কর আড়াই শতাংশ কমিয়ে দেয়া হয়েছে। এটি সবাই সমালোচনা করছেন। এমনকি দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স ‘ব্যাংক ডাকাতদের’ শাস্তি চেয়েছেন। এর সাফাই গাইতে গিয়ে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ব্যাংকিং কমিশন আমি করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সেটা আর করছি না। এজন্য কাগজপত্র সব তৈরি করে রেখে দিচ্ছি। আগামীতে যে সরকার আসবে, তার জন্যই এটা রেখে যাচ্ছি। সঞ্চয়পত্রে সুদহার আপাতত বাড়ছে না। আগামী জুলাইয়ে এ নিয়ে পর্যালোচনা করব।

এ বাজেটে সবচে স্বস্তিকর বিষয় হচ্ছে মূল্যসংযোজন কর। অতীতে ব্যবসায়ীদের এটা নিয়ে বড় ধরনের অসন্তোষ ছিল। ১৯৯১ সাল থেকেই সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ পর্যন্ত মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট পরিশোধ করে আসছে ভোক্তারা। প্রস্তাবিত বাজেটে ভ্যাটের এ হারে পরিবর্তন এনে সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ নির্ধারণ করেছে সরকার। আগামী অর্থবছর থেকে পণ্য ও সেবাভেদে ২ থেকে ১০ শতাংশ পর্যন্ত মোট পাঁচটি ্যাব করা হয়েছে ভ্যাটের হারে। চাল আমদানিতে ফের ২৮% শুল্ক আরোপ কৃষকদের সুরক্ষা দেবে। এর প্রভাব বিশ্বের চাল বাজারে পড়তে শুরু করেছে। বিধবাদের আর্থিক সুবিধা দেয়া সরকারের ইতিবাচক দিক। ইস্পাত তৈরির ক্যামিকেল আমদানিতে রেয়াত, প্রেস ও মিডিয়ার সক্ষমতা বৃদ্ধি, পেনশনে ইনক্রিমেন্ট মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য দুটি বোনাস ইত্যাদি পদক্ষেপ অত্যন্ত প্রশংসনীয়।

চিটাগাং চেম্বারের প্রেসিডেন্ট মাহবুবুল আলম লোকাল এলসির ক্ষেত্রে সোর্স ট্যাক্সের বিরোধিতা করেছেন। চিটাগাং মেট্রোপলিটন চেম্বার সুদহার সিঙ্গেল ডিজিট চেয়েছেন। ঢাকার মেট্রো চেম্বার ব্যক্তিখাতে কর সীমা বৃদ্ধি না করায় হতাশা ব্যক্ত করেছে। বিশিষ্ট অর্থনীবিদ ড. মইনুল ইসলামের মতে এটি নির্বাচনী বাজেট। ড. হোসেন জিল্লুর রহমান বলেছেন শিক্ষকদের তুষ্ট করার জন্য এমপিও প্রোগ্রামিংয়ে বর্ধিত বাজেট করা হয়েছে। কিন্তু শিক্ষা উপকরণ বা শিক্ষার্থীরা এতে লাভবান হবে না। বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফিন্যান্স কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ড. সেলিম উদ্দিন ডিসেম্বর ’১৮ এর মধ্যে ৩৫% বাজেট বাস্তবায়ন কল্যাণকর বলে মনে করেন।

সোনাদিয়া ডীপ সী পোর্ট কোন অনুমোদন পায় নি। তবে মাতারবাড়ি বিদ্যুৎ কেন্দ্র, কর্ণফুলী টানেল, দোহাজারীঘুমধুম রেল লাইন, মহেশখালির এলএনজি টার্মিনাল বরাদ্দকৃত ১০ প্রকল্প রয়েছে। এমার্জিং সেক্টরব্লু ইকোনমি বিকাশের জন্য কোন বরাদ্দ রাখা হয়নি। আসন্ন সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে এটি একটি স্বাভাবিক বাজেট। যতটুকু করা হয়েছে আমরা তার সত্যিকার বাস্তবায়ন প্রত্যাশা করছি।

আলোচিত দশ

. দ্বিতীয় পদ্মা সেতু :

২০১৮১৯ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে যোগাযোগ অবকাঠামো খাতে ৫৩ হাজার ৮১ কোটি টাকা বরাদ্দের পাশাপাশি পাটুরিয়া ও গোয়ালন্দ ঘাটে ভবিষ্যতে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

. ব্যাংকের করপোরেট করে ছাড় :

আসন্ন অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য করপোরেট কর আড়াই শতাংশীয় পয়েন্টে কমিয়ে ৩৭ দশমিক ৫০ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে।

. মামলা ব্যবস্থাপনায় তথ্যপ্রযুক্তি :

জুডিশিয়ারি কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের সব আদালতকে আইসিটি নেটওয়ার্কের আওতায় আনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের অধীনে সংঘটিত অপরাধের দ্রুত ও কার্যকর বিচার নিশ্চিত করার জন্য সাতটি বিভাগীয় শহরে সাতটি সাইবার ট্রাইব্যুনাল গঠনের প্রক্রিয়া চলছে।

. পেনশনে ইনক্রিমেন্ট :

অবসরকালে সরকারি কর্মচারীদের নিরবচ্ছিন্ন আয় প্রবাহ নিশ্চিত করতে বিদ্যমান শতভাগ নগদায়ন প্রথা রহিত করা হয়েছে। একইভাবে এ আয়কে মূল্যস্ফীতির প্রভাবমুক্ত রাখতে পেনশনের ক্ষেত্রেও ইনক্রিমেন্ট প্রদানের প্রথা চালু করা হয়েছে।

. অনলাইন কেনাকাটায় ৫ শতাংশ ভ্যাট :

২০১৮১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে অনলাইনভিত্তিক প্রস্তাবিত বাজেটে অনলাইনভিত্তিক পণ্য বা সেবা ক্রয়বিক্রয়ের ওপর ৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে। সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে পণ্য ক্রয়বিক্রয় বাড়াতে ‘ভার্চুয়াল বিজনেস’ নামে একটি নতুন সেবার সংজ্ঞা বাজেটে সংযোজন করা হয়েছে।

. ফেসবুক ও গুগলের আয়ে করারোপ :

বাজেটে ফেসবুক, গুগল ও ইউটিউবের মতো বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর বাংলাদেশ থেকে আয়ের ওপর কর আরোপের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিদ। ভার্চুয়াল সেবাদাতা এসব কোম্পানির আয়ে করারোপের প্রস্তাব করা হলেও করহার উল্লেখ করা হয়নি।

. দুটি গাড়ি থাকলে ১০ শতাংশ সারচার্জ :

২০১৮১৯ অর্থবছর থেকে কোনো ব্যক্তির নামে দুটি গাড়ি থাকলে বা সিটি করপোরেশন এলাকায় ৮ হাজার বর্গফুট আয়তনের গৃহসম্পত্তি থাকলে, তাকে ১০ শতাংশ সারচার্জ পরিশোধ করতে হবে।

. হেলিকপ্টার ভ্রমণে ২০% সম্পূরক শুল্ক :

উচ্চবিত্তের মধ্যে হেলিকপ্টারে ভ্রমণ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। ধীরে ধীরে এ সেবা ব্যবহারের প্রসার ঘটছে। বাজেটে হেলিকপ্টার সেবার ওপর ২০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে।

. কারওয়ান বাজারের কাঁচাবাজারসহ তিন মার্কেট স্থানান্তর :

রাজধানীর যানজট ও জলাবদ্ধতা নিরসনের পাশাপাশি নাগরিক সুবিধা বাড়ানোর জন্য কারওয়ান বাজারের কাঁচাবাজারসহ তিনটি কিচেন মার্কেট স্থানান্তরের উদ্যোগ।

১০. প্রেস ও মিডিয়ার সক্ষমতা বৃদ্ধি :

বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশকে ব্র্যান্ডিং করার লক্ষ্যে প্রেস ও মিডিয়ার সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে পর্যায়ক্রমে প্রত্যেক জেলায় তথ্য কমপ্লেক্সের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে বিদেশেস্থ বাংলাদেশ মিশনগুলোয় নয়টি নতুন প্রেস উইং খোলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

x