নদী দখলের আগেই ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে

বান্দরবানে নদী রক্ষা সম্মেলনে বীর বাহাদুর

বান্দরবান প্রতিনিধি

রবিবার , ২১ এপ্রিল, ২০১৯ at ১২:৫২ অপরাহ্ণ
50

জীবন বাঁচাতে পানির প্রয়োজন। পানি ছাড়া মানুষ বাঁচতে পারে না। পাহাড়ের প্রাণ নদীগুলোকে রক্ষায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসন দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করলে হাইকোর্টে মামলা করার প্রয়োজন হয় না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার। গতকাল শনিবার বান্দরবানের হিলভিউ কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ‘পার্বত্য নদী রক্ষা’ সম্মেলনের সমাপনী দিনের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
‘নদী বাঁচলে বাঁচবে দেশ’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন ও বাংলাদেশ পরিব্রাজক দল যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করে। শুক্রবার শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলনের সমাপনী দিনে প্রামাণ্যচিত্রের মাধ্যমে বান্দরবানের বিভিন্ন ঝিরি ঝর্ণা নষ্ট হয়ে যাওয়ার তথ্য তুলে ধরা হয়।
সমাপনী দিনের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। তিনি বলেন, পরিবেশ রক্ষায় সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। আর সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে, যাতে কেউ নদী দখল করে স্থাপনা তৈরি করতে না পারে। দখলের আগেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
মন্ত্রী আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নের স্বার্থে পাহাড় কাটতেই হবে। তবে পাহাড়গুলো এমনভাবে কাটতে হবে, যাতে পাহাড়ে ধস দেখা না দেয়। ধস ঠেকাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও গ্রহণ করতে হবে। নতুন নতুন বনায়ন সৃষ্টি করতে হবে আমাদের সবাইকে।
জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সদস্য শারমিন সোনিয়া মুরশিদ বলেন, আমাদের দেশের নদীগুলো দখল হয়ে যাচ্ছে। নদী দখলের ফলে পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সংকটাপন্ন অবস্থায় রয়েছে পাহাড়ের নদীগুলো। সাঙ্গু ও মাতামুহুরী নদীকে দখল এবং দূষণ মুক্ত রাখতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দলের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. মঞ্জুরুল কিবরিয়া, চট্টগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী শামসুল করীম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. সন্তোষ কুমার দেব, বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দলের সভাপতি মো. মনির হোসেনসহ প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও সম্পৃক্ত ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখেন।

x