নতুন সিনেমায় নিরব, নায়িকা নিয়ে চমক

রবিবার , ১৮ আগস্ট, ২০১৯ at ৭:৫৭ পূর্বাহ্ণ
64

দেশের জনপ্রিয় মডেল থেকে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা হিসেবে। সর্বশেষ তার ‘আব্বাস’ সিনেমাটি মুক্তি পায়। সেটি বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে দর্শক মহলে। সাঈফ চন্দন পরিচালিত ছবিটিতে নিরবের নায়িকা ছিলেন সোহানা সাবা ও সুচনা আজাদ।
সেই সাফল্যের পর আবারও নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলেন নিরব। এবার তার পরিচালক রফিক সিকদার। ছবির নাম ‘বসন্ত বিকেল’। সমপ্রতি সিনেমাটিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন নিরব। এ ছবি নিয়ে পরিচালক রফিক সিকদার বলেন, ‘মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের স্মৃতিবিজড়িত পাবনা শহরে শিশুকাল থেকে হাতে হাত রেখে বেড়ে উঠে রুদ্র ও চন্দ্রাবতী নামে দুই স্বপ্নবান যুবক-যুবতী। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এম ফিল করছেন। এই যুবক-যুবতীর গভীর প্রেমের বিয়োগান্তক পরিণতির সিনেমা ‘বসন্ত বিকেল’। সবকিছু ঠিক থাকলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে সিনেমাটির শুটিং শুরু করব।’
নায়ক ও নায়িকা নিয়ে তিনি বলেন, ‘এ পর্যন্ত দুটি ছবিতে আমি নিরবের সঙ্গে কাজ করেছি। তার কাছ থেকে যে সহযোগিতা ও আন্তরিকতা আমি পেয়েছি পরিচালক হিসেবে সেটি আমার জন্য তৃপ্তির। তাই আবারও নিরবের সঙ্গেই কাজ করতে যাচ্ছি। আশা করছি আমাদের নতুন সিনেমাটি ভালো লাগবে দর্শকের। নায়িকা এখনো চূড়ান্ত করিনি। তবে শিগগিরই ছবির মহরতে নায়িকার নাম ঘোষণা করবো। নায়িকা নির্বাচনে চমক থাকছে।’
ছবিটি নিয়ে নায়ক নিরব বলেন, ‘ছবির নামের মতোই খুব সুন্দর একটি গল্প রয়েছে ‘বসন্ত বিকেল’-এ। এখানে নায়ক ও নায়িকার চরিত্র দুটোও দারুণ। অভিনয়ের অনেক সুযোগ আছে। অ্যাকশনধর্মী ‘আব্বাস’র পর এই চরিত্রটি আমার জন্য একটু আলাদা অভিজ্ঞতার হবে।’
নির্মাতা রফিক সিকদার জানান, সামসুজ্জামান রিমন প্রযোজিত ‘বসন্ত বিকেল’ সিনেমাটি আরবিএস টেক লিমিটেডের ব্যানারে নির্মিত হচ্ছে। পরিচালনার পাশাপাশি এর গল্প, সংলাপ, চিত্রনাট্যও রচনা করেছেন রফিক সিকদার। এরই মধ্যে চিত্রনাট্যের কাজ শেষ হয়েছে। এছাড়া এর তিনটি গানের রেকর্ডিং শেষ হয়েছে বলেও জানান এই নির্মাতা।
প্রসঙ্গত, রফিক সিকদার ২০১৫ সালে নির্মাণ করেন ‘ভোলা তো যায় না তারে’ সিনেমাটি। এতেও অভিনয় করেন নিরব। এটি রফিক সিকদারের সঙ্গে প্রথম কাজ এই অভিনেতার। ২০১৬ সালে মুক্তি পায় সিনেমাটি। অন্যদিকে রফিক সিকদার পরিচালিত ‘হৃদয় জুড়ে’ সিনেমাটি মুক্তির অপেক্ষায়। এতে নিরবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় নায়িকা প্রিয়াঙ্কা সরকার।

x