নতুন ইনিংস শুরু হচ্ছে আফতাবের

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার , ১০ অক্টোবর, ২০১৯ at ১০:২৫ পূর্বাহ্ণ
32

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচাইতে বেশি মারকুটে ব্যাটসম্যান হিসেবে স্বীকৃতি ছিল আফতাব আহমেদের। কিন্তু ক্যারিয়ারের বৃহস্পতি যখন তুঙ্গে তখন আর ক্যারিয়াটাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারলেননা এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। আইসিএল খেলে পরে আবার জাতীয় দলে ফিরলেও আগের সে আফতাবকে দেখা যায়নি। তাই ব্যাট-গ্লাভস তুলে রাখেন এক সময়। এরপর যোগ দেন কোচিং এ। এ বছরের শুরুতে ঢাকা লিগে একটি দলের হেড কোচ ছিলেন। তরে এবারে প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে হেড কোচ হিসেবে আজ অভিষেক হচ্ছে আফতাবের। জাতীয় ক্রিকেট লিগের এবারের আসরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় দলের কোচ আফতাব। যে দলটির হয়ে দীর্ঘ দিন খেলেছেন আফতাব আজ সে দলেল ডাক আউটে থাকবেন তামিম-মোমিনুলদের কোচ হয়ে।
২০১৫ সালে চট্টগ্রামে নিজের ক্রিকেট একাডেমি দিয়ে কোচিং ক্যারিয়ারের শুরু করেছেন আফতাব। এরপর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের চার আসরে তাকে একই ভূমিকায় দেখা গেছে। মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে সহকারি কোচ হিসেবে কাটিয়েছেন তিনটি মৌসুম। সবশেষ একটি মৌসুম কাটিয়েছেন লিজেন্ডস অব রুপগঞ্জের প্রধান কোচ হিসেবে। কিন্তু দেশের প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে এটাই প্রথম কোচ হিসেবে মাঠে নামছেন আফতাব। তবে কোচ হিসেবে ভিনদেশি কোনো লিগেও দেখা যাবে এবার চট্টগ্রামের এই সাবেক ক্রিকেটারকে। নভেম্বরের মাঝামাঝি সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টি-টেন ক্রিকেট লিগের তৃতীয় আসর। টুর্নামেন্টটিতে এই প্রথমবারের মতো অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশের কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি। আসরে ‘বাংলা টাইগার্স’ নামে অংশ নেয়া দলটির প্রধান কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন লাল সবুজের সাবেক ক্রিকেটার আফতাব আহমেদ। সবকিছু ঠিক থাকলে স্বল্প সময়ের কোচিং ক্যারিয়ারে এই প্রথম কোনো বিদেশি লিগের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের এক সময়ের এই মারকুটে ব্যাটসম্যান। নতুন অ্যাসাইনমেন্টে তাই দারুণ রোমাঞ্চিত তিনি।
গতকাল আফতাব যেমন বললেন যে কোনো প্রথমই রোমাঞ্চের। তাতে যেমন থাকে নতুনকে পরখ করে দেখার অদ্বিতীয় অনুভূতি তেমনি থাকে ভাল কিছু করে দেখানোর চ্যালেঞ্জও। আর সেই চ্যালেঞ্জ নিতে পুরোদস্তুর প্রস্তুত আফতাব। গতকাল বুধবার মিরপুর জাতীয় ক্রিকেট একাডেমিতে তার এই রোমাঞ্চের কথা জানান। আফতাব বলেন, এটা অবশ্যই বড় ব্যাপার। অনেক রোমাঞ্চিত আমি। আমি যেহেতু কোচিংয়ে এসেছি, এটা আমার জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। আমি চেষ্টা করব আপনাদের দোয়ায় ভালো কিছু করার। আফতাব বলেণ প্রথমেই আমি বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাই। আমাদের যারা সাবেক ক্রিকেটার ছিলেন তাদের মাঠে সুযোগ করে দেয়ার জন্য। আমি অবশ্যই কিছুটা উত্তেজিত। এই বছর প্রথমবারের মতো চট্টগ্রামের হেড কোচ হিসেবে কাজ করবো। আমরা শেষ ৮-১০ বছরে একই জায়গায় আটকে আছি। প্রথম বছর এসে আমি অনেক কিছু করতে পারব না। তবে চট্টগ্রামকে ওই জায়গায় নিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা যেখানে আগে ওরা লিড করেছে।
এছাড়া প্রথমবারের মত টি-টেন লিগের কোচের দায়িত্ব পালন করতে যাওয়া আফতাবের জন্য আরও একটি ‘প্রথম’ অপেক্ষা করছে। অবশ্য সে জন্য খুব বেশি দিন অপেক্ষা করতে হবে না। আজ সকালেই মাঠে গড়াবে লংগার ভার্সনের জাতীয় ক্রিকেট লিগের ২১তম আসরের খেলা। যেখানে প্রথমবারের মতো প্রধান কোচের ভূমিকা পালন চট্টলার অভিজ্ঞ এই সাবেক ক্রিকেটার। পথ দেখাবেন চট্টগ্রাম বিভাগকে। কাজেই এখানেও রোমাঞ্চের কমতি নেই। আজ বৃহস্পতিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জাতীয় লিগে আফতাবের দল চট্টগ্রাম বিভাগের মুখোমুখি হবে ঢাকা মেট্রো। ভয়ডরহীন ক্রিকেটের জন্য পরিচিত ছিলেন আফতাব। যে কোনো বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতে পারতেন বুক চিতিয়ে। শিষ্যদের মাঝে সেই মানসিকতা দেখতে চান তিনি। তার কোচিংয়ের দর্শনও ভীতিহীন ক্রিকেট। তিনি বলেন আমি যখন খেলা শুরু করি, তখন লক্ষ্য ছিল জাতীয় দলে খেলব। যখন ক্রিকেট খেলেছি, তখন লড়াকু মানসিকতা নিয়েই খেলেছি। আমি শতভাগ চেষ্টা করব। জানি না ফলাফল কি হবে। কিন্তু আমার চেষ্টা পুরোপুরিই থাকবে এখানে।

x